হারের পর বাসা থেকে বের হন না বিসিবি সভাপতি

হারের পর বাসা থেকে বের হন না বিসিবি সভাপতি
বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১১:১৬,  আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১১:২১

ইন্দোরে প্রথম টেস্টে ভারতের সামনে পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশ। মুমিনুল হকের দল তিন দিনেই ম্যাচ হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। এমন হারে স্বাভাবিকভাবে হতাশ বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানালেন, টেস্ট শুরুর আগেই মন ভেঙে গেছে তার! টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের হতাশায় তিনি নাকি ঘর থেকেই বের হতে চান না।

শনিবার রাতে রাজধানীর পাঁচ তারকা এক হোটেলে হয়েছে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠান। পরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান।

ইন্দোর টেস্টের পারফরম্যান্স নিয়ে জানতে চাওয়া হলে নাজমুল হাসান বলেন, ‘টেস্টের আগেই মন ভেঙে গেছে, টেস্ট তো পরে। এই সিরিজে অনেক আশা ছিল, টি-টোয়েন্টি আমরা জিতব। এর আগে তিন-তিনবার, ভারতের সঙ্গে শেষ ওভারে বা শেষ বলে হেরেছি। প্রতিবার শেষ করতে গিয়ে হেরেছি। এর মধ্যে নিশ্চিত জয়ের কথা ছিল বিশ্বকাপে আর নিদাহাস ট্রফি।’

শেষ টি-টোয়েন্টিতে হারের বাসা থেকে বের হতে চান না বলে জানালেন বোর্ড সভাপতি, ‘এবার মনে-প্রাণে বিশ্বাস ছিল আমরা জিতব। প্রথম ম্যাচ জিতেছি। দ্বিতীয় ম্যাচ ওরা ভালো খেলে জিতেছে। তৃতীয় ম্যাচ তো নিশ্চিত জেতা ম্যাচ। ওই হার আসলে নিজেই মানতে পারছি না। আমি বাসা থেকেই বের হই না। কোথাও যেতেই চাই না। মেনেই নিতে পারছি না ওই ম্যাচ হারব।’

নাগপুরে শেষ ম্যাচে ১৭৫ রান তাড়ায় নাঈম শেখের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে একটা সময় জয়ের পথেই ছিল বাংলাদেশ। শেষ ৪৩ বলে ৮ উইকেট হাতে নিয়ে দরকার ছিল ৬৫ রান। সেই সমীকরণ মেলাতে পারেনি বাংলাদেশ। এমন হারের জন্য বিসিবি প্রধান দায় দেখছেন অভিজ্ঞদের।

‘নাঈমের মতো একটি ছেলে রান করতে পারলে, মিথুন যদি পারে, তাহলে আমাদের মূল ক্রিকেটার যারা, সৌম্য-লিটন-মুশফিক-রিয়াদ, ১০ রান করে করলেও আমরা ম্যাচ জিততাম। ফাইনালে গিয়ে সবচেয়ে অভিজ্ঞদের কাছ থেকে যদি রান না পাই, তাহলে তো ভাগ্য খারাপ। ওরা তো কেউ খারাপ ক্রিকেটার নয়। হয় না কেন জানি। এবার বিশ্বাস ছিল, আমরা জিতবই। হলো না, সেই শোকই এখনো ভুলতে পারিনি’- বলেন নাজমুল হাসান।

মানবকণ্ঠ/এআইএস 




Loading...
ads





Loading...