ফেসবুক থেকে পদত্যাগ করতে পারেন মার্ক জুকারবার্গ!


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৩ নভেম্বর ২০২২, ২২:২৪

একের পর এক নতুন প্রজেক্ট আসছে। কোম্পানির ব্যয় ভার কমাতে ছাটাই করা হয়েছে ১১ হাজার কর্মী। কিন্তু তারপরও লাভের মুখ দেখছে না ফেসবুক তথা মেটা। গুঞ্জন উঠেছে নিজের ব্যর্থতা স্বীকার করে নিয়ে মেটাভার্স থেকে পদত্যাগ করছেন প্রতিষ্ঠানটির সিইও মার্ক জুকারবার্গ। যার হাত ধরেই ফেসবুক আলোর মুখ দেখেছে।

গুঞ্জন বলছে মার্ক জুকারবার্গ আগামী বছরেই কোম্পানি ছাড়তে চলেছেন। সম্প্রতি এই সংক্রান্ত বিভিন্ন খবর আন্তর্জাতিক টেক পোর্টালগুলোতে প্রচার হচ্ছে।

ওই সব প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামী বছর অর্থাৎ ২০২৩ সালে পদত্যাগ করতে পারেন মেটার সিইও। বলা হচ্ছে, একের পর এক প্রজেক্টে ব্যর্থতা জুকারবার্গকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করছে।

প্রতিবেদনে, মেটার কমিউনিকেশন বিভাগের প্রধান অ্যান্ডি স্টোনও পদত্যাগ করতে পারেন বলে দাবি করা হয়েছে।

দ্য লিক নামের একটি ওয়েবসাইট তাদের প্রতিবেদনে দাবি করেছে, মার্ক জুকারবার্গ আগামী বছরেই কোম্পানি ছাড়তে চলেছেন। তিনি মেটাভার্স প্রকল্পে দেদারসে অর্থ ব্যয় করেছেন, কিন্তু লাভের মুখ দেখছেন না। এছাড়া প্রতিনিয়ত লোকসানও হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির। এছাড়া তাদের ভিআর প্রোজেক্টও বাজারে বিশেষ ভাবে সাড়া ফেলতে ব্যর্থ।

গত মাসের শুরুর দিকে ফিনান্সিয়াল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মেটার বিনিয়োগকারীরা এখন আর মার্ক জুকারবার্গকে বিশ্বাস করছেন না। মেটাতে বিনিয়োগ করা মানুষের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। ব্র্যাড গার্স্টনারের খোলা চিঠি থেকে এই সমস্ত কিছু প্রকাশ্যে এসেছে।

বলা হচ্ছে, মেটাভার্সের মতো প্রকল্পের ব্যর্থতা এবং কিছু বিনিয়োগকারীর বিদায়ের পর মার্ক জুকারবার্গ নিজেকে সরিয়ে ফেলতে চাইছেন।

উল্লেখ্য, মেটাভার্সের কারণে মেটার স্টক ৭০% এরও বেশি হ্রাস পেয়েছে।

তথ্যসূত্র: দ্য লিক, টেক গাপ, টিভি নাইন

মানবকণ্ঠ/এসআরএস


poisha bazar