ফ্রিতে ফ্রিল্যান্সিং শেখার সুযোগ, সেরা শিক্ষার্থী পাবে ল্যাপটপ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৮ আগস্ট ২০২২, ১৬:২৬

ঘরে বসে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং এখন সবচেয়ে সহজ ও অন্যতম উপায়। ছোট থেকে বড় যে কেউ এখন ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে আয় করতে পারছেন বেশ ভাল অংকের টাকা। এরজন্য ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রিল্যান্সিং এর অন্যতম জনপ্রিয় একটি সেক্টর।

গেল দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে ফ্রিল্যান্সিং-এর উপর বিশেষ কোর্সে ট্রেনিংয়ের বিশেষ সুযোগ দিচ্ছে ‘এস আর ড্রিম আইটি’। এই সময়ের মধ্যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ট্রেইনিরা এরইমধ্যে ৩ লক্ষাধিক ডলারেরও বেশি আয় করেছেন, যা খুবই বিরল। প্রতিষ্ঠানটি তাদের ট্রেইনিদের ফ্রিল্যান্সিং করে আয় করার জন্যে শুধুমাত্র ডিজিটাল মার্কেটিং এর ট্রেইনিং দিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

ট্রেইনিদের জন্য প্রতিদিন ১১ ঘন্টা করে অনলাইন লাইভ সাপোর্টের ব্যবস্থা এবং সারাজীবনের জন্য এটি একদম ফ্রি! অর্থাৎ একজন ট্রেইনি তার প্রশিক্ষণ শেষেও লাইভ সাপোর্ট থেকে সহযোগিতা নিতে পারে। প্রতিষ্ঠানটি তাদের ট্রেইনিদের দিয়েছে ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্সের সুযোগ। যার মাধ্যমে যে কেউ মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য খুব সহজেই নিজেকে প্রস্তুত করতে পারে।

‘এস আর ড্রিম আইটি’ এ থাকছে নতুনদের জন্য বিশেষ সুযোগ, বিশেষ করে মেয়েদের জন্য। প্রথমবারের মত প্রতিষ্ঠানটি সুযোগ দিচ্ছে ফ্রি কোর্সের অর্থাৎ বিনামূল্যে কোর্স করার সুযোগ। এই কোর্সে থাকছে ফ্রিল্যান্সিং ও ডিজিটাল মার্কেটিং এর ৩ মাসের দীর্ঘমেয়াদী অনলাইন লাইভ কোর্স।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শুভ আহমেদ জানান, আগামী আগস্ট মাস থেকে থেকে শুরু হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রিল্যান্সিং এর নতুন ব্যাচ যেখানে মেয়েদের জন্য এই কোর্স একদমই ফ্রি।

তিনি বলেন, এখন অনেক ছেলেই ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে আয় করছেন কিন্তু মেয়েরা এদিক থেকে একটু পিছিয়ে। তারাও চাইলে এদিকটাই এগিয়ে থাকতে পারেন, নিজেকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন। মেয়েরা এই বিষয়গুলোতে অনাগ্রহী বলেই তাদের জন্য আমরা ফ্রি সুযোগ দিচ্ছি। তাছাড়া ট্রেনিং করতে গিয়ে মোটা অংকের টাকা দেওয়া অনেকের পক্ষেই সম্ভব হয় না।  এর আগে আমরা বিশেষ কোর্স চালু করলেও এবারই প্রথম ফ্রি কোর্স চালু করেছি এবং আমরাই প্রথম। সেই সাথে তাদেরকে পুরস্কারকৃত করা হবে। প্রতিটি ব্যাচ থেকে টপ আর্নারকে একটি করে ল্যাপটপ দেওয়া হবে। এছাড়াও গিফট হিসেবে থাকবে মোবাইল ফোন, ইন্টার্নশীপ করার সুযোগ এবং জব প্লেসমেন্টের সুবিধা।

শুভ আহমেদ লিড ট্রেইনার হিসেবে শুরু থেকে একাই তিন হাজারেরও এর বেশি স্টুডেন্ট-কে ট্রেইনিং করিয়েছেন। শুধু যে তিনি-ই ট্রেইনার হিসেবে আছেন এমন নয়, তিনি নিজেও ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে পঞ্চাশ হাজার ডলারেরও বেশি আয় করেছেন। পাশাপাশি ট্রেইনিং করিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টে। এছাড়া তিনি গেস্ট লেকচারার হিসেবে নিযুক্ত আছেন আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে।

তিনি এলইডিপি এর যেসকল স্টুডেন্ট-কে ট্রেইনিং করিয়েছেন তাদের সবাইকে ‘এস আর ড্রিম আইটি’-তে ফ্রি অনলাইন হেল্পের ব্যবস্থা করিয়ে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন।

এই বিষয়ে কথা বলতে চাইলে শুভ আহমেদ বলেন, ‘আমার স্বপ্ন ছিল এমন একটি প্লাটফর্ম তৈরি করার, যেখানে সবাই সবথেকে কম মূল্যে সবথেকে বেশি স্কিল ডেভেলপ করে নিজেকে একজন প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সার দাবি করতে পারবে। আর সেই লক্ষ্যেই আমরা শুরু থেকে অটল ছিলাম। যার কারণে আজ ‘এস আর ড্রিম আইটি’ শতভাগ পজিটিভ রিভিউপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান। আমার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হচ্ছে বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মকে স্কিলড প্রজন্ম বানানো যেন কাউকে বেকার বসে থাকতে না হয়।’

তিনি আরও বলেন ,‘আমরা একটি ডিজিটাল ড্যাশবোর্ড দিয়ে থাকি যেখানে লাইভ ক্লাসের রেকর্ডেড ভিডিও, ট্রেইনারের সাথে কনসালটেশন, লাইভ চ্যাটিং করার সুবিধা থাকে।’

তাই দেরি না করে এখনই রেজিস্ট্রেশন করুন এখানে ।

মানবকণ্ঠ/এআই


poisha bazar