বিষাক্ত গাছ ম্যানশিনীল


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫ নভেম্বর ২০২১, ২২:০৪

বিশ্বে নানা প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে লাখো প্রজাতির গাছ। এসব গাছ আমাদের জীবন। মহামূল্যবান অক্সিজেন সরবরাহ করে প্রাণিজগৎকে বাঁচিয়ে রাখে। কিন্তু এই বিশ্বেই আবার এমন গাছ আছে যা প্রাণও কেড়ে নিতে পারে। তেমনই একটি গাছ হল ‘ম্যানশিনীল’।

যাকে ‘মৃত্যুগাছ’ বলেও ডাকা হয়। শুধু তাই নয়, বিশ্বের সবচেয়ে বিষাক্ত গাছ হিসেবেও পরিচিত ম্যানশিনীল। ক্যারিবীয় সাগরের তটে মূলত এই গাছ দেখা যায়। উচ্চতা ৫০ ফুট পর্যন্ত হতে পারে। এই গাছ এতটাই বিষাক্ত যে এর সংস্পর্শে এলে দেহের ত্বক পুড়ে যেতে পারে।

দাবি করা হয়, এই গাছের ফল খেলে দেহের ভেতরে রক্তক্ষরণ হতে শুরু করবে এবং কিছুক্ষণের মধ্যে মৃত্যু হতে পারে। এই গাছে দুধের
মতো ঘন রস থাকে। পাতা, গাছের ছাল এবং ফলেও সেই রস পাওয়া যায়। সেই রস কোনোভাবে শরীরের সংস্পর্শে এলে পুড়ে যাওয়ার মতো ক্ষত সৃষ্টি হয়।

সায়েন্স অ্যালার্ট পত্রিকা বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার জানায়, ‘এই রসে ফরবল নামে এক ধরনের বিষ থাকে। যা সহজে পানির সাথে মিশে যায়। তাই বৃষ্টির সময় এই গাছের নিচে আশ্রয় নিতে বারণ। কারণ বৃষ্টির সঙ্গে এই রস মিশে শরীরের সংস্পর্শে এলে বা কোনো কারণে চোখে গেলে দৃষ্টিশক্তির ক্ষতিও হতে পারে।

গিনেস বুকেও বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক গাছ হিসেবে নথিভুক্ত হয়েছে ম্যানশিনীলের নাম। তবে স্থানীয় বাস্তুতন্ত্রকে টিকিয়ে রাখতে এই গাছের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। সমুদ্রের পানি থেকে মাটিক্ষয় রোধ করে এই গাছ।


poisha bazar

ads
ads