স্বাস্থ্যসেবার ডিজিটালাইজেশনে তরুণ তানজিলের সেবাঘর


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৪ নভেম্বর ২০২১, ২১:৪৩,  আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০২১, ২২:২৭

ছোট বেলায় তানজীলের স্বপ্ন ছিলো ডাক্তার হবেন, মানুষের সেবা করবেন। কিন্তু মেডিক্যালে চান্স না পাওয়ায় সে ইচ্ছা আর পূরণ হয়নি। শেষতক পরিবারের ইচ্ছায় পড়াশুনা করেন ইনফরমেশন টেকনোলজিতে। আইটিতে উচ্চতর ডিগ্রী নেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। শুরু হয় নতুন পথচলা। সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশুনার শুরু থেকেই আইটি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কাজে নিজেকে যুক্ত করেন তানজীল। বড়ভাইয়ে হাত ধরে আইটি ক্যারিয়ারেও নিজেকে সমৃদ্ধ করতে থাকেন ধীরে ধীরে। ফ্রিল্যান্সার হিসেবে দেশি-বিদেশী নানা প্রতিষ্ঠানের কাজের পাশাপাশি গড়ে তোলেন নিজেদের আইটি ফার্ম ‘বিডিটাস্ক’।

পেশা বদল হলেও স্বপ্ন বদল হয়নি তানজীলের। নিজের আইটি জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে শুরু করেন স্বাস্থ্যসেবার ডিজিটালাইজেশনের কাজ। গড়ে তোলেন ‘সেবাঘর’ নামের অ্যাপ ভিত্তিক প্লাটফর্ম। যেখানে ঘরে বসেই দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে পছন্দসই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ পেতে পারেন যে কেউ। বর্তমানে তার এই প্লাটফর্মে প্রায় ১৫০০ অধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। প্রতিষ্ঠার দুই বছরে সেবা নিয়েছে প্রায় ৪ (চার) লক্ষাধিক মানুষ। প্রতিদিনই যেমন বাড়ছে সেবা গ্রহীতার সংখ্যা তেমনি বাড়ছে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের তালিকাও।

‘সেবাঘর’ নিয়ে তানজীল বলেন, আমাদের জীবনে মানুষ সবচে বেশী অসহায় থাকেন যখন অসুস্থ হওন। তারচেয়েও দুঃখজনক হলো রোগ নির্ণয়ে প্রায়শই সঠিক চিকিৎসকের কাছে যেতে না পারা। বিশেষ করে আমাদের দেশে বেশিরভাগ মানুষ গ্রামে বসবাস করে। অথচ অনেক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকই গ্রামে যেতে চান না। সেক্ষেত্রে শহরমুখী হতে হয়। অথবা ঢাকায় এসেও ডাক্তারের সিরিয়াল পেতে-প্রেসক্রিপশন পেতে বা ফলোআপের জন্য প্রচুর ভোগান্তি পোহাতে হয় সাধারণ মানুষকে। অনেক অর্থও খরচ করতে হয়। এই বিষয়টা শুরু থেকেই আমাকে কষ্ট দিতো। সেই থেকেই চিন্তা-প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে এমন একটা উদ্যোগের যাতে শহরে বা বাইরে, কিংবা কর্মজীবী ব্যস্ত মানুষও সহজে উন্নত চিকিৎসা সেবা পান। কেউ যেন হয়রানির শিকার না হোন। অথবা ভিজিটের ভয়ে যেন কেউ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের থেকে বিমুখ না হন। পাশাপাশি দেশের হাসপাতালগুলোতেও যেন রোগীর চাপ কমে। এতে সেবার গুনগত মানও বৃদ্ধিপাবে।

তানজীলের এই অভিনব উদ্যোগ ইতোমধ্যেই বেশ সফলতা পেয়েছে। প্রতিদিনই বাড়ছে ‘সেবাঘর’ অ্যাপ ব্যবহার কারীর সংখ্যা। তাছাড়া নতুন নতুন ফিচার যুক্ত করছেন তিনি। ২৪ ঘণ্টা নিরবচ্ছিন্ন সেবার জন্য রয়েছে ডেডিকেটেড কলসেন্টার ও ডেভেলপার টিম।

তানজীল জানান, অ্যাপটি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে, একজন সহজেই ডাক্তারের অ্যাপয়নমেন্ট নিতে পারেন। আবার চিকিৎসকও তার সুবিধাজনক সময়ে ভিডিও কলের মাধ্যমে রোগীর সাথে সাক্ষাৎ করতে পারেন। রয়েছে ডিজিটাল প্রেসক্রিপশন সুবিধা যাতে হাতে লেখা বা ওষুধের নাম ভুল হওয়ার সুযোগ নেই। রোগীর আইডিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার পুরাতন প্রেসক্রিপশন জমা থাকবে যাতে ডাক্তার সহজেই সেটি দেখে নতুন করে পরামর্শ দিতে পারবে। এর জন্য কোন বাড়তি ফি-ও দেয়া লাগবে না। দিন রাত ২৪ ঘণ্টা যে কোন সময় ইমার্জেন্সি ডাক্তার পাবেন ‘সেবাঘর অ্যাপে। ভবিষ্যতে নার্সিং সেবাও যুক্ত করার জন্য কাজ করছেন তিনি। গুগল প্লে-স্টোর থেকে ‘sebaghar' সার্চ করে সহজেই ডাউনলোড করা যাবে অ্যাপটি।


poisha bazar

ads
ads