স্বামীকে ‘ভাই’বলে ডাকার বিধান কী


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ জুন ২০২২, ১২:৩৯

ইসলামী শরিয়তে স্বামীকে ভাই বলা অনুচিত। হাদিসে এসেছে, ‌'এক ব্যক্তি নিজ স্ত্রীকে বলল, হে আমার বোন। রাসূল (সা:) তা শুনে জিজ্ঞেস করলেন, 'সে কি তোমার বোন?' তিনি তা অপছন্দ করেন এবং তাকে এভাবে ডাকতে নিষেধ করেন।' (সুনানে আবু দাউদ, হাদিস : ২২০৪)

স্বামীকে ভাই ডাকার ব্যাপারটিও ঠিক তেমনই। অর্থাৎ স্বামীকে ভাই বলে সম্বোধন করা অনুচিত। তবে কেউ এমন বলে ফেললে এর কারণে বৈবাহিক সম্পর্কের কোনো ক্ষতি হবে না। (ফাতহুল কাদির ৪/৯১; ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/৫০৭; রদ্দুল মুহতার ৩/৪৭০)

তবে যদি স্বামী স্ত্রীকে বোন বলে সম্বোধনের মাধ্যমে এমন ইচ্ছা করে যে, আমার বোন যেমন আমার জন্য হারাম, তুমিও তেমনি আমার জন্য হারাম; তাহলে তা ‘জিহার’-এর অন্তর্ভুক্ত হবে। এমতাবস্থায় স্ত্রী-স্বামীর মধ্যে বৈবাহিক সম্পর্ক বহাল থাকবে না যতক্ষণ না স্বামী ‘কাফ্ফারা’ আদায় করে।

আর জিহারের কাফ্ফারা হলো- ধারাবাহিকভাবে দুই মাস রোজা রাখা বা ৬০ জন অসহায় ব্যক্তিকে খাওয়ানো। (সুরা মুজাদালাহ, আয়াত : ৩) পবিত্র কুরআনে এ প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘তোমাদের মধ্যে যারা নিজেদের স্ত্রীদের ‘জিহার’ করে তারা যেন জেনে রাখে যে, তারা তাদের মা নয়, তাদের মা তো তারাই যারা তাদেরকে প্রসব করেছে, তারা তো কেবল অশালীন ও মিথ্যা কথা বলে, নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ ক্ষমাশীল ও মার্জনাকারী।' (সুরা মুজাদালাহ, আয়াত : ২)

এ ছাড়া বিভিন্ন দেশে স্বামীর নাম ধরে ডাকার প্রচলন আছে। সুতরাং এ বিষয়ে সামাজিক নিয়ম-নীতি, সম্মান ও ভদ্রতার প্রতি লক্ষ রাখা জরুরি। তবে নাম ধরে ডাকা গেলেও ভাই বলে ডাকার কোনো বিধান ইসলামে নেই।

মানবকণ্ঠ/এআই


poisha bazar