পিএইচপি প্রতিযোগিতায় পাঁচ বিজয়ীর উমরায় যাওয়ার সুযোগ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩১ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১১

সারাদেশ থেকে ২৫০০ শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত পিএইচপি সত্যের সন্ধানে প্রতিযোগিতায় সবাইকে পিছনে ফেলে গ্র্যান্ড ফাইনালে চ্যাম্পিয়ান ট্রপি জিতে নেন চট্টগ্রামের সন্তান দৌলতুল ইসলাম সাকলাঈন। পুরস্কার হিসাবে ওমরা পালন করার সুযোগ পেলেন তিনি। 

রবিবার সোশাল মিডিয়ায় ব্যাপক সাড়া জাগানো সমাপনী অনুষ্ঠানটি অনলাইনে তরুণ দায়ী শায়খ মোস্তফা আযহারীর পরিচালনা ও সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বিচারক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক স্কলার শায়খ হাসান আযহারী ও শায়খ জয়নুল আবেদীন কাদেরী।

অতিথিরা তাদের বক্তৃতায় বলেন, ইসলামিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তরুণদের চারিত্রিক এবং তাহজীব-তমুদ্দন সমন্বিত সমাজ ও রাষ্ট্র গড়ার এক অপূর্ব সুযোগ। ২,৫০০ (আড়াই হাজার) ছাত্রের অংশগ্রহনে প্রতিযোগিতায় তাঁদের সুপ্ত মেধা বিকাশের সুযোগ পেয়েছে। এ ধরনের প্রতিযোগিতা যত বেশি হবে তত ছাত্ররা মেধা বিকাশের সুযোগ পাবে।

বক্তারা আরও বলেন-বর্তমান সৌদি সরকার ওমরাহ পালনে সিনোফার্মা টিকাকে উপেক্ষা করায় বাংলাদেশের একটি বিশাল অংশ হজ্ব এবং ওমরাহ হজ্ব পালনে সুযোগ পাচ্ছেনা। মহানবী (সা.) এর জিয়ারতের মানস-কামনা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এব্যাপারে সরকারকে উদোগি হয়ে সৌদি সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তার সাথে যোগাযোগের মাধ্যমে একটা বিহীত করা দরকার বলে মনে করেন।

অনুষ্ঠানে একজনকে পবিত্র ওমরাহ যাওয়ার টিকেট পুরুস্কৃত করলেও অপর প্রতিযোগি শাহ আহমাদ রেযা, আব্বাস খান, মাঈনুল ইসলাম, আবু তৈয়্যবকেও অনলাইনে দেখা দর্শক-শ্রোতাদের সৌজন্যে ওমরাহ পালনের সুযাগ পেয়েছে। আয়োজক শায়খ মুস্তফা আযহারীর নেতৃত্বে ওমরাহ পালনের লক্ষে পাঁচজনকে নিয়ে অতিসত্বর তিনি মক্কা-মদিনার উদ্দেশ্যে রওনা করবেন।

শুরু থেকে অনুষ্ঠানে মডারেটর হিসেবে ছিলেন গোলাম পাঞ্জেতান, কায়সান বিন জুবায়ের ও মুশফিক ইলাহি।


poisha bazar

ads
ads