অন্যতম ইবাদত যাকাত

অন্যতম ইবাদত যাকাত
অন্যতম ইবাদত যাকাত - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • মাওলানা এম. এ. করিম ইবনে মছব্বির
  • ১৯ মে ২০২০, ০২:৩১,  আপডেট: ১৯ মে ২০২০, ০৯:৪৭

আজ ২৫ রমজানুল মোবারক ১৪৪১ হিজরী। ইসলামী জীবন হচ্ছে মুসলমানদের পঞ্চম স্তম্ভ বিশিষ্ট গৃহের মতো। আর যাকাত হচ্ছে সেই গৃহের পঞ্চম স্তম্ভ।

আল্লাহপাকের কি কুদরত, গরিব মুসলমানদের ইসলামের মূল তিনটি ভিত্তি পালন করতে হয়। যথাক্রমে: কালিমা, নামাজ, রোজা আর ধনীদের পুরো পাঁচটাই পালন করতে হয়। যথাক্রমে কালিমা নামাজ, রোজা, হজ ও যাকাত।

যাকাত, ইসলামের মৌলিক ইবাদতসমূহের মধ্যে অন্যতম। প্রত্যেক মুমিনদের যাকাত ফরজ হওয়ার বিষয় সম্পর্কে বিশ্বাস স্থাপন করতে হবে, ঠিক তেমনি ভাবে যার ওপর যাকাত ফরজ তাকে তা নিয়মিত পরিশোধও করতে হয়। আল্লাহপাক আল কোরআনের অনেক স্থানে নামাজের পাশাপাশি যাকাত প্রদানের তাগিদ দিয়েছেন।

আল্লাহপাক ঘোষণা করেন যে, তোমরা নামাজ কায়েম কর, যাকাত প্রদান কর এবং রুকুকারীদের সঙ্গে রুকু কর (সূরা বাকারা) নবীয়ে করীম (স.) বলেন যে, ইসলামের মূল ভিত্তি পাঁচটি স্তম্ভের ওপর প্রতিষ্ঠিত। আল্লাহ ব্যতীত আর কোনো মাবুদ নেই এবং হযরত মুহাম্মদ (স.) আল্লাহর প্রেরিত রাসূল এতে সাক্ষ্য দেয়া, নামাজ প্রতিষ্ঠা করা, যাকাত দেয়া, শারীরিক ও আর্থিক সামর্থ্য থাকলে হজ করা এবং পবিত্র রমজান মাসে রোজা রাখা (বুখারী ও মুসলিম)।

নবীয়ে করীম (স.) বলেন, হে মুয়াজ তুমি জানিয়ে দাও আল্লাহপাক তাদের সম্পদের ওপর যাকাত ফরজ করেছেন, যা ধনী ব্যক্তিদের থেকে নিয়ে দরিদ্র ব্যক্তিদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

(তিরমিযী শরীফ) সুতরাং, সমাজের বিত্তবান ব্যক্তিরা সিয়াম পালনের সঙ্গে সঙ্গে গরিব, দুঃখী, দুস্থ, অভাবী, অনাথ, এতিম, মিসকিন এবং কপর্দকহীন পথচারীকে যাকাতের অর্থ বণ্টন করে দেবে।

প্রত্যেক রোজাদার মুমিনের কর্তব্য মাহে রমজানের রোজা পালনের সঙ্গে সঙ্গে যাকাতের অর্থ সম্পদ দুস্থ মানবতার সেবায় ব্যয় করা, গরিব-দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সহানুভূতি প্রদর্শন করা।

মানবকণ্ঠ/এমএইচ




Loading...
ads






Loading...