প্রধানমন্ত্রী গায়ে হাত তুলেছেন, আর ধর্ষণ করেছেন মন্ত্রী!

- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৭ জুন ২০২০, ১২:০০,  আপডেট: ০৭ জুন ২০২০, ১২:০৯

সিন্থিয়া ডি রিচি নামের এক নারী ব্লগারকে নিয়ে পাকিস্তানে হঠাৎ করেই আলোচনার ঝড় বইছে। সাবেক পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রহমান মালিক তাকে একাধিক বার ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ তার। এছাড়া দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি তার গায়ে হাত তোলেছেন বলেও দাবি করেছেন সিন্থিয়া। তবে তার এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রহমান মালিক ও ইউসুফ রাজা গিলানি।

সিন্থিয়ার দাবি, রহমান মালিক ২০১১ সালে পানীয়র সঙ্গে উত্তেজক ওষুধ খাওয়ায় দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন৷ তার আরও দাবি, পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মখদুম শাহবুদ্দিন ইসলামাবাদে প্রেসিডেন্ট হাউসে তাকে শারীরিক নির্যাতন করেন৷ আসিফ আলি জারদারি ছিলেন তখন প্রেসিডেন্ট৷

ওই নারীর অভিযোগের পর রীতিমতো 'টালমাটাল' বিলাউল ভুট্টোর দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)৷ দলের পক্ষ থেকে সিন্থিয়ার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করা হয়েছে৷ পিপিপি বলছে, সিন্থিয়া মিথ্যা বলছেন।

এছাড়া ফেসবুক পোস্টে সিন্থিয়া জানান, ২০১১ সালে আল কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনের বিরুদ্ধে অ্যাবোটাবাদের একটি বাড়িতে অভিযান চালায় মার্কিন সেনা। তাতে মৃত্যু হয় লাদেনের। সেই সময়ই ভিসা নিয়ে কথা বলতে রহমান মালিকের সঙ্গে তার বাসভবনে দেখা করেন তিনি। সেখানে ঘুমের ওষুধ মেশানো পানীয় খাইয়ে রহমান মালিক তাকে ধর্ষণ করেন। সেই সময় পাকিস্তানে পিপিপি-র সরকার ছিল। সেখানে তাকে কেউ সাহায্য করবে না ভেবেই সেই সময় এ নিয়ে তিনি মুখ খোলেননি বলে জানিয়েছেন সিন্থিয়া।

সিন্থিয়া আরও জানান, পাকিস্তান তার দ্বিতীয় বাসস্থান এবং ওই ঘটনার প্রমাণ তার কাছে রয়েছে৷ আগামী সপ্তাহে বিস্তারিত তথ্যপ্রমাণ প্রকাশ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, এক পাকিস্তানি নাগরিকের সঙ্গে সম্প্রতি বাগদান সম্পন্ন হয়েছে সিন্থিয়ার। হবু স্বামীই তাকে সত্যটা সামনে তুলে আনতে উৎসাহ জুগিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রহমান মালিক। শনিবার তার মুখপাত্র একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলেন, এ নিয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করতে চান না রহমান মালিক। কিন্তু সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করছেন তিনি। এই সব অভিযোগের কোনো সত্যতা নেই। রহমান মালিককের ভাবমূর্তি নষ্ট করতেই এই ধরনের মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। এক জন বিশেষ ব্যক্তি ও সংগঠনের নির্দেশ মতো কাজ করছেন ওই মার্কিন নারী।’ এছাড়া সিন্থিয়ার গায়ে হাত তোলার কথা অস্বীকার করেছেন সাবেক পাক প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানিও।

এই মুহূর্তে ইসলামাবাদেই রয়েছেন সিন্থিয়া। সেখানে চিত্রনির্মাতা হিসাবে কাজ করেন তিনি। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় লেখালেখিও করেন। খবর: নিউজ-১৮, আনন্দবাজার পত্রিকা

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads