উৎসবমূখর পরিবেশে বাকার বনভোজন অনুষ্ঠিত


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:৩৫

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশীদের অন্যতম বৃহৎ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন বাংলাদেশী আমেরিকান কালচারাল এসোসিয়েশন বাকার বার্ষিক বনভোজন গত ১০ই সেপ্টেম্বর ব্রঙ্কসের নয়নাভিরাম ফেরী পয়েন্ট পার্কে অনুষ্ঠিত হয়।

নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি, কানেকটিকাট, পেনসেলভেনিয়া থেকে আগত বিপুল সংখ্যক অথিতিদের সরব উপস্থিতি, বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা, অকৃত্রিম বিনোদন, সুস্বাদু খাবার পরিবেশনার মাধ্যমে বনভোজন স্থল পরিণত হয়েছিল এক প্রাণচঞ্চল মিলন মেলায়।

সংগঠনের সভাপতি আহবাব চৌধুরী খোকনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সারওয়ার চৌধুরীর সঞ্চালনায় বনভোজন ২০২২ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বাংলা সিডিপ্যাপ সার্ভিসেস ও এলেগ্রা হোম কেয়ার এর চেয়ারম্যান ও সিইও জনাব আবু জাফর মাহমুদ ও ডিস্ট্রিক ৮৭ এর এসেম্বলী মেম্বার কারিনা রেইস।

আগত সকল অথিতিবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বনভোজন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক লোকমান হোসেন লুকু। এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আব্দুল হাসিম হাসনু, মুলধারার রাজনীতিবিদ ও আমেরিকান বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর সভাপতি আব্দুস শহীদ, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ, সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও বনভোজন উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব শাহ কামাল উদ্দিন, সংগঠনের অন্যতম কার্যকরী পরিষদ সদস্য শহিদুল ইসলাম ভুইয়া, উদযাপন কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী ও সংগঠনের স্কুল ও সমাজসেবা সম্পাদক সালমা সুমি।

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর সংগঠনের সহ-সভাপতি ফয়সল আহমেদ ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাকসুদা আহমেদের তত্ত্বাবধানে এবং প্রচার সম্পাদক সোহেল আহমদ, সংগঠনের কার্যকরি কমিটির সদস্য মোহাম্মদ রনির পরিচালনায় শুরু হয় খেলাধুলা পর্ব। শিশু কিশোর এবং পুরুষ মহিলাদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতা মূলক খেলাধুলার মাধ্যমে এ পর্বের সমাপ্তি ঘটে।

দ্বিতীয় পর্যায়ে ছিল বিভিন্ন সুস্বাদু খাবারের মাধ্যমে আপ্যয়ন পর্ব এবং সেইসঙ্গে কমিউনিটিতে বিশেষ অবদানের জন্যে জনাব আব্দুল হাসিম হাসনু, বিশিষ্ট সাংবাদিক শিবলী চৌধুরী কায়েস, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট জে মোল্লা সানী, সোহেল আহমেদ, মোহাম্মদ রনি ও শহিদুল ইসলাম ভূইঁয়াকে এসেম্বলী মেম্বার কারিনা রেইসের পক্ষ থেকে বিশেষ সাইটেশন প্রদান করা হয়।

পরবর্তী পর্বে ছিল র‍্যাফেল ড্র এবং পুরস্কার বিতরণী। এ পর্বের শুরুতে আগত অথিতিদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন, হৃদয়ে বাংলাদেশের সভাপতি সাইদুর রহমান লিঙ্কন, সংগঠনের সহ-সভাপতি বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও সাংবাদিক সৈয়দ ইলিয়াস খসরু, মৌলভীবাজার ডিস্ট্রিক্ট সোসাইটির সভাপতি তজুমুল হোসেন সাধারণ

সম্পাদক জাবেদ উদ্দিন, বিশিষ্ট কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট, জ্যামাইকা ফ্রেন্ডস সোসাইটির নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ও ব্যবসায়ী জে মোল্লা সানি, বাংলাদেশী আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী সদস্য পুলিশ অফিসার মাহবুবুর জুয়েল, ওসমানীনগর এসোসিয়েশন অব ইউএসএর সভাপতি বশির উদ্দিন, কুলাউড়া এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জাবেদ আহমেদ, সংগঠনের  যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আলমগীর কবির শামীম প্রমুখ।

বনভোজনের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন কোষাধ্যক্ষ শাহ বদরুজ্জামান রুহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক এমডি আলাউদ্দিন, চিত্ত বিনোদন সম্পাদক হেলাল আহমেদ প্রমুখ।

এছাড়া বনভোজনে যোগদেন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ জিল্লুর রহমান জিলু, আব্দুর রহিম বাদশা, মুলধারার রাজনীতিবিদ ও বিশিষ্ট আইনজীবী মোহাম্মদ এন মজুমদার, পার্কচেষ্টার জামে মসজিদের সভাপতি জয়নাল চৌধুরী, কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট রিয়াজ উদ্দিন কামরান, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সভাপতি মরহুম কামাল আহমেদের সহধর্মিনি আফসারা আহমদ, মেয়ে রোমানা আহমেদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট, ফেঞ্চুগঞ্জ এসোসিয়েশন অব ইউএসএর সাধারণ সম্পাদক কাওসারুজ্জামান কয়েছ, বাংলা বাজার বিজনেস এসোসিয়েশন এর সভাপতি আব্দুল ওয়াহিদ চৌধুরী জাকির স্টারলিং ফার্মেসীর মোহাম্মদ আলী, সৌদীআরব প্রবাসী কুলাউড়া এসোসিয়েশন রিয়াদের সহ-সভাপতি ফয়েজ আহমেদ প্রমুখ।

বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব জে মোল্লা সানী র‍্যাফেল ড্রয়ের প্রথম পুরস্কার স্বর্ণের চেইন, আসন্ন বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী রব-রুহুল পরিষদের পক্ষ থেকে দ্বিতীয় পুরস্কার ৫৬ ইঞ্চি টিভি, সংগঠনের কার্যকরী পরিষদ সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম ভূইয়ার পক্ষ থেকে ৩য় পুরস্কার ল্যাপটপ, স্টার্লিং ফার্মেসীর পক্ষ থেকে ৪র্থ পুরস্কার আইপ্যাড, প্রতিদিন ফ্যাশনের পক্ষ থেকে ৫ম পুরস্কার সামস্যাং স্মার্ট ফোন, স্টার্লিং ফোনস ক্লাব ৬ষ্ঠ পুরস্কার, মোখলেসুর রহমান ৭ম পুরস্কার এবং পার্কচেস্টার রিয়েলিটি ৮ম পুরস্কার প্রদান করে।

খেলাধুলার সকল পুরস্কার স্পন্সর করেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ সাদী মিন্টু ও বিশিষ্ট কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট নওশাদ হোসেন।

শেষপর্বে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সিদ্দিকী, কমিউনিটি এক্টিভিষ্ট আজিমুর রহমান বুরহান, ফারুক চৌধুরী প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে আহবাব চৌধুরী খোকন অতিথিবৃন্দকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ভবিষ্যতেও এ রকম আয়োজনে সবার অংশগ্রহণ এবং সহযোগিতা কামনা করে বনভোজনের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

মানবকণ্ঠ/এমআই


poisha bazar