লাল দুর্গে সর্বেসর্বা নাদাল


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১২ অক্টোবর ২০২০, ১৮:১৭

প্যারিসে রাজার মতো করে আসেন রাফায়েল নাদাল, ফিরে যান রাজার মতোই। তাই নোভাক জোকোভিচের বিপক্ষে ২০১৯ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে সরাসরি সেটে 'অপমান জনক' হারের প্রতিশোধ নেয়ার জন্য নিজের দুর্গকেই বেছে নিলেন স্প্যানিশ তারকা।

যে দুর্গে তিনি পরিচিত হয়ে আছেন অবিসংবাদিত সম্রাট হিসেবে। তাকে হারানো ত দূর, চ্যালেঞ্জ জানানোটাও এড়িয়ে যান সমসাময়িক খেলোয়াড়রা। তবে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালের আগে সেই ভুলটাই করলেন জোকোভিচের কোচ গোরান ইভানি সেভিচ। বলেছিলেন, নাদালের কোনো সুযোগ নেই।

সুযোগ ছিল কি নেই তা ইতোমধ্যেই প্রমাণ করে দিয়েছেন নাদাল। এমনি এমনি তো তাকে ক্লে কোর্টের রাজা বলা হয় না। প্যারিসে ১৩ বার, ১০০ তম জয় ও ২০ তম গ্র্যান্ডস্ল্যাম জিতে রজার ফেদেরারকে ছোয়ার স্মৃতিটা স্মরণীয় করে রেখেছেন জোকোভিচকে লজ্জাজনক এক হারের স্বাদ দিয়ে। ৬-০, ৬-২, ৭-৫ গেমে সরাসরি সেটে নিলেন সেই হারের মধুর প্রতিশোধ। বছর জুড়ে অপ্রতিরোধ্য থাকা জোকোভিচ এদিন দাঁড়াতেই পারলেন না তার সামনে।

ম্যাচ শেষে বিধ্বস্ত সার্বিয়ান তারকাকে সে হারের কথা মনে করিয়ে যেন কাটা গায়ে নুনের ছিটাই দিলেন নাদাল, 'প্রথমে আরেকটি অসাধারণ টুর্নামেন্টের জন্য জোকোভিচকে জানাই অভিনন্দন। আজকের জন্য ক্ষমা চাচ্ছি, তবে দুই বছর আগে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে সে আমাকে মেরেই ফেলেছিল। আজ আমার পালা ছিল। এটা খেলারই অংশ। আমি প্রতিশোধের খুব বড় ভক্ত নই। সময় নিজের মতো করে না গেলে আমি সেই ব্যাপারটা মেনে নেই।'

ইনজুরির কারণে ফ্রেঞ্চ ওপেনে ছিলেন না ফেদেরার। তবে না থেকেও যেন টূর্নামেন্ট জুড়ে ছিলেন তিনি। তা শুধু নাদালের জন্যেই। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বিকে নিজের সমানে দেখতে যে কারোরই জ্বলে ওঠার কথা। তবে নাদাল-ফেদেরারের দ্বৈরথ এখানেই আলাদা। প্রতিদ্বন্দ্বির সাফল্যে জ্বলে না ওঠে একে অপরকে সামনের পথের জন্য শুভকামনা জানান তারা। ফেদেরারও সেই রীতি বজায় রাখলেন।

তিনি লেখেন, “একজন ব্যক্তি ও চ্যাম্পিয়ন হিসেবে, বন্ধু রাফার প্রতি বরাবরই আমার সর্বোচ্চ শ্রদ্ধাবোধ আছে। বছরের পর বছর ধরে আমার সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে, আমি বিশ্বাস করি নিজেকে শানিত করতে পরস্পরকে ধাবিত করেছি আমরা। এজন্যই, তার ২০তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের পর তাকে অভিনন্দন জানাতে পারা আমার জন্য সত্যিকারের সম্মান। অবিশ্বাস্যভাবে রোলাঁগারোঁয় ১৩ বার জিতল সে, এটা অসাধারণ এবং ক্রীড়ার ইতিহাসের সেরা অর্জনগুলোর একটি। আমি তার দলকেও অভিনন্দন জানাতে চাই, কারণ কেউ একক ভাবে এটা করতে পারে না। আশা করি, আমাদের এই চলমান ভ্রমণের ধারা বজায় রাখতে ২০ সংখ্যাটি দুজনের জন্যই স্রেফ আরেকটি পদক্ষেপ। দারুণ অর্জন রাফা, এই কৃতিত্ব তোমার প্রাপ্য।”





ads