বেস্ট-আর্চারের টুইটার যুদ্ধ


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ জুলাই ২০২০, ১৬:৫৫

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছেড়ে ইংল্যান্ডে খেলছেন বলে জোফরা আর্চারকে নিয়ে ক্যারিবিয়ানদের মনে প্রচুর অভিমান। সাউদাম্পটন টেস্টের আগেই এই পেসারের সঙ্গে বন্ধুত্ব বজায় না রাখার আহ্বান জানিয়েছেন কেমার রোচ। সেটা করেই বোধ হয় ম্যাচে আর্চারের বিপক্ষে সফল তারা।

প্রথম ইনিংসে কেউই উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসেননি গতিময় এই পেসারকে। তাই ২২ ওভারে ৬১ রান দিয়ে উইকেট শূন্যই থাকেন আর্চার। এমন বাজে পারফরমেন্সে তার উপর চটেছেন সাবেক ক্যারিবিয়াম ফাস্ট বোলার টিনো বেস্ট। তার আর্চারের বদলে ব্রডকে নেয়াই উচিত ছিল ইংল্যান্ডের।

আর্চারের পারফরমেন্স দেখে টুইটারে বেস্ট লিখেছেন, ‘আমি সত্যিই বুঝতে পারছি না কেন ব্রডের বদলে আর্চারকে খেলানো হচ্ছে! আপনার দলে উড আছে যে ৯০ কিমি গতিবেগে বল করতে পারে। আর্চার তো ব্রডের মতোই করছে। এটা একদম ঠিক হয়নি।’

ম্যাচ খেলতে থাকা আর্চারের চোখ এড়ায়নি এমন উস্কানিমূলক টুইট। ফিরতি টুইটে তিনি লেখেন, ‘এতই জ্ঞান আছে যখন, কোচ হলে না কেন?’ বার্বাডোজে জন্ম নেয়া তরুণ ইংলিশ পেসারের এমন টুইট সহ্য হয়নি বেস্টের।

এরপরে তিনি আবার লেখেন, ‘আমাকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করো না যুবক। তোমার বোলিং টুথপেস্টের মতোই। অ্যাশেজের পর তোমার বোলিংয়ে কোনো গতিও ছিল না। এখন ঘুমাতে যাও। বিশ্রাম নাও। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দ্বিতীয় ইনিংসে বল করার প্রস্তুতি নাও।’ এখানেও থামেনি কথার লড়াই। আর্চার ঘুমাতে যাওয়ার আগে আবারো লেখেন, ‘তুমি অবশ্যই দুর্দশাগ্রস্ত জীবন অতিবাহিত করছো।’





ads






Loading...