সন্তান জন্মদানের উদ্দেশ্যে কানাডা আসতে চান?

এম এল গনি

মানবকণ্ঠ
এম এল গনি - ফাইল ছবি।

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:০২,  আপডেট: ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:১০

আমার সাথে মাঝেমধ্যে কিছু ক্লাইয়েন্ট যোগাযোগ করেন যাঁদের স্ত্রী সন্তানসম্ভবা। এ অবস্থায় কানাডায় ট্যুরিস্ট ভিসা নিয়ে আসতে চান তাঁরা। মূল উদ্দেশ্য দেশ দেখা নয়, কানাডায় বাচ্চার জন্ম দেয়া। তাঁরা জানেন, কানাডায় সন্তান জন্মগ্রহণ করলে জন্মসূত্রে সে কানাডার নাগরিক হয়ে যায়, পৃথিবীর অনেক দেশে যা সম্ভব নয়। তৃতীয় বিশ্বের কোন নাগরিকের জন্য নিঃসন্দেহে এ এক বড় প্রাপ্তি! এছাড়া তাঁরা মনে করেন, বাচ্চা যেহেতু কানাডায় জন্মলাভ করেছে, তাই বাচ্চার দেখাশোনার অজুহাতে তাঁরাও কানাডায় স্থায়ীভাবে থেকে যেতে পারবেন।

আসলে কি ব্যাপারটা ততো সহজ? চলুন একটু বাস্তবতা ঘেটে দেখি। সত্য হলো, বাচ্চার দেখাশোনার জন্য আপনি কানাডায় থেকে যেতে পারেন না। ভিসায় বর্ণিত সময়েই আপনাকে নিজ দেশে ফিরতে হবে। চাইলে আপনার কানাডিয়ান বাচ্চাটা কানাডা সরকারের কাছে আপনি রেখে যেতে পারেন। কানাডা সরকার অন্য দশটা মাতৃপিতৃহারা শিশুকে যেভাবে দেখভাল করে সেভাবেই চাইল্ড কেয়ার এজেন্সির মাধ্যমে আপনার বাচ্চার দেখভাল করবে। এখানে মা-বাবার বাড়তি মায়া-দয়া বলে কিছু নেই, জীবন বড় যান্ত্রিক।

আরেকটি কথা, বাচ্চা পেটে আছে এ তথ্য উল্লেখ না করে যদি আপনি কানাডায় ভিজিট ভিসার আবেদন করে থাকেন, আর কোনো কারণে সেভাবেই ভিসা পেয়ে যান, তবে আপনাকে মোটামুটি ধরে নিতে হবে, সেটাই আপনার প্রথম এবং শেষ কানাডা আগমন। কারণ, কোনোকারণে কানাডায় ডাক্তারের কাছে যেতে হলেই তো ঘটনা পরিষ্কার। সেক্ষেত্রে আপনি তথ্য গোপন করে পরোক্ষভাবে misrepresentation এর আশ্রয় নিয়েছেন বলে ধরে নেয়া হবে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে, পরিণত বয়সে সন্তান বড় হয়ে আপনাকে স্পনসর করে আনতে গেলেও কেন আপনি বা আপনারা প্রথমবার ছলচাতুরির আশ্রয় নিয়ে কানাডা ঢুকেছিলেন সে বিষয়টা খতিয়ে দেখা হবে।

তাই বলে প্রেগনেন্ট অবস্থায় কানাডা ভিজিট করা যায় না তা কিন্তু নয়। তবে এসব ক্ষেত্রে একজন ইমিগ্রেশন প্রফেশনালের পরামর্শ নেওয়া ভালো। নিজে নিজে বুদ্ধি খাটিয়ে এ বিষয়গুলো মোকাবেলা করতে গেলে অনেক সময় নিজের অজান্তেই সমস্যায় পড়ে যেতে পারেন।

লেখক- এম এল গনি : কানাডা প্রবাসী লেখক, ইমিগ্রেশন কনসালটেন্ট ও প্রকৌশলী।
www.MLGimmigration.com

মানবকণ্ঠ/জেএস/এইচকে



poisha bazar


ads