manobkantha

মাংস ধোয়ায় করছেন যে ভুল

সব কাজের যেমন পরিচ্ছন্নতার প্রয়োজন রয়েছে তেমনি কিছু কাজে পরিচ্ছন্নতারও একটা পরিমাপ রয়েছে। যেমন বাজার থেকে কাঁচা মাছ-মাংস নিয়ে আসলে সেগুলো বেশি পানি দিয়ে ধুয়ে বারবার পরিষ্কার করা হয়। কিন্তু বেশি পানি দিয়ে ধুয়ে নিলেই অথবা দেখতে পরিষ্কার হলেই যে সবসময় তা জীবাণুমুক্ত হয় বিষয়টা তা নয়।

অস্ট্রেলিয়ার ফুড সেফটি ইনফরমেশনের দেওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুসারে মাংস মোটেও ধুয়ে রান্না করা উচিত নয়। তাদের মতে মাংস ধোয়া স্বাস্থ্যকর অভ্যাস নয়। এর ফলে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়তে পারে ক্ষতিকর ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া।

বিশেষজ্ঞদের মতে রান্নার সময় ভুল তাপমাত্রার কারণেই খাবার তাড়াতাড়ি দূষিত হয়ে যায়। যে কারণে পেটের সমস্যা বেশি হয়। মাংস ধুলেই এই সমস্যা বেশি হয়। কারণ মাংস ধোয়ার পর তা ঘরের সাধারণ তাপমাত্রাতে আসলেই ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের বেশি সম্ভাবনা থাকে। আর তাই মুরগির মাংস অনেক পানি দিয়ে কচলে কচলে ধোয়ার প্রয়োজন নেই।

গরম পানিতে মুরগি ধোয়ার দরকার নেই অথবা খুব জোরে পানি ছেড়ে ধোয়ারও প্রয়োজন নেই, অল্প পানিতেই ধুয়ে নিন।

তবে মাছ খুব পরিষ্কার করে পানি দিয়ে ধুতে হবে। অনেকেই ভাবেন মাংসে লেবুর রস বা ভিনেগার মাখিয়ে রাখলেও ব্যাকটেরিয়া মরে যায়। কিন্তু মাংসে লেবুর রস দিলেই ব্যাকটেরিয়া বেশি বংশবৃদ্ধি করার সুযোগ পায়।

মাংস সব সময় হালকা পানিতে ধুয়ে নেওয়াই ভালো। মাংস ধুয়ে নিয়ে টিস্যু পেপার বা সুতির নরম কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে ফেলুন। সবজি, মাছ, মাংস কাটা-ধোয়ার আগে অবশ্যই সাবান দিয়ে ভালোভাবে হাত ধুয়ে নিতে হবে।

মানবকণ্ঠ/এফআই