manobkantha

খেলোয়াড়দের চুরি যাওয়া অর্থ ফেরত দেবে বাফুফে

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপা জয়ের ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়নরা দেশে ফিরেন বুধবার দুপুরে। নারী ফুটবল দলের আগমনে বিমানবন্দরে দেশের মানুষ যখন উচ্ছ্বাসে ব্যস্ত, সেই মুহূর্তে নারী ফুটবলাররা পান দুঃখজনক খবর।

বাংলাদেশ নারী দলের দুই ফুটবলার কৃষ্ণা রানী সরকার ও শামসুন্নাহারের লাগেজ থেকে খোয়া যায় এক হাজার ৩০০ ডলার।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও নারী উইংয়ের চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ।

কিরণ বলেন, ‘আমাদের দুইজন খেলোয়াড়, একজন কৃষ্ণা রানী সরকার। তার ছিল ৯০০ ডলার। আরেকজন খেলোয়াড় শামসুন্নাহার সিনিয়র। তার ছিল ৪০০ ডলার।

‘আমরা যখনই জানতে পারলাম তাদের এই টাকাগুলো খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, আমরা সাথে সাথেই বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষকে শুধু জানিয়েছে এবং সিভিল এভিয়েশন অথরিটিকে জানানো হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ও সিভিল এভিয়েশন বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধান করছে। তাদের যত ধরনের অনুসন্ধান করার আছে এগুলো করে বিকালের মধ্যে আমাদের তারা জানাবেন। আমরা যেহেতু নেপাল থেকে এসেছি, এটা এখনই বলা মুশকিল আসলে ঘটনাটা কোথায় ঘটেছে। এটা আসলে এখনই বলা যাচ্ছে না। উনারা বিষয়টা চেক করে তারপর জানাবেন।’

টাকা না পাওয়া গেলে বাফুফে কোনো পদক্ষেপ নেবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে মাহফুজা কিরণ বলেন, ‘ওরা বাচ্চা মেয়ে। ওদের কাছে তো এটা অনেক বেশি টাকা, তবে এই টাকাটা যদি কোনোভাবে না পাওয়া যায়, তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে অবশ্যই পদক্ষেপ নেয়া হবে।’

বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ জানান, বিষয়টি নিয়ে মতিঝিল ও বিমানবন্দর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা সরাসরি সিভিল এভিয়েশন ও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছি। এমনকি আমরা দুটো জিডিও করেছি। মতিঝিল থানায় একটি জিডি করা হয়েছে এবং বিমানবন্দর থানায় আরও একটি জিডি করা হয়েছে।’ 

 

মানবকণ্ঠ/পিবি