manobkantha

সৌদি সফরে যাচ্ছেন চীনা প্রেসিডেন্ট

আগামী সপ্তাহে সৌদি আরব সফরে যাচ্ছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। চীনের প্রেসিডেন্টকে অভ্যর্থনা জানাতে বড় ধরনের আয়োজন করতে যাচ্ছে রিয়াদ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, দায়িত্ব গ্রহণের পর সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রথম বিদেশ সফরে সৌদি আরব গিয়ে যেমন অভ্যর্থনা পেয়েছিলেন, শি জিনপিংয়ের জন্য তেমন আয়োজন করার প্রস্তুতি চলছে দেশটিতে। জুন মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সফরের তুলনায় চীনা প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানানোর আয়োজনে বেশ পার্থক্য রয়েছে। বাইডেন পেয়েছিলেন তুলনামূলক অনাড়ম্বর অভ্যর্থনা। বিশেষ করে বাইডেন ও সৌদি আরবের ডি ফ্যাক্টো শাসক যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের মধ্যকার দূরত্ব এতে প্রকাশিত হয়েছে। ওয়াশিংটনের সঙ্গে রিয়াদের সম্পর্কে যখন শীতল হতে শুরু করছে তখন চীনা প্রেসিডেন্টকে বরণ করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। যার লক্ষ্য হচ্ছে বেইজিং ও রিয়াদের সম্পর্ক দৃঢ় করা এবং চীনকে সৌদি আরবের মিত্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা।

গত দুই দশকে চীন ও সৌদি আরবের সম্পর্ক ক্রমাগত ঘনিষ্ঠ হচ্ছিল। তবে মোহাম্মদ বিন সালমান যুবরাজ হওয়ার পর ২০১৬ সাল থেকে এই সম্পর্ক অনেক বেশি গভীর হয়েছে। উইঘুর মুসলিমদের প্রতি চীনের আচরণকে সমর্থন জানিয়েছে সৌদি আরব। এমনকি হংকংয়ে জাতীয় নিরাপত্তা আইনের প্রতিও রিয়াদের সমর্থন ছিল। এর ফলে মানবাধিকার ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে যায়। আর একই সময়ে ওয়াশিংটন যখন মধ্যপ্রাচ্য থেকে নজর সরিয়ে নিচ্ছিল তখন চীন ও সৌদি আরবের মধ্যকার বাণিজ্যিক সম্পর্কও বৃদ্ধি পেয়েছে।

মার্চ মাসে সৌদি আরব সফরের জন্য চীনা প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। ২০১৭ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্পের পর শি জিনপিংয়ের এই সফর সৌদি আরবের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে। সূত্র: রয়টার্স