manobkantha

নিওরের সামার ফেস্ট অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশে আরো বৃহৎ পরিসরে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় নিওর ব্র্যান্ডের কসমেটিকস পণ্য বাজারজাতকরণের লক্ষ্যে সম্প্রতি ঢাকার একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে নিওর সামারফেস্ট। বর্ণাঢ্য ফ্যাশন শো আর মনোমুগ্ধকর এই আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স ইন বাংলাদেশের (অ্য্যামচেম) প্রেসিডেন্ট সৈয়দ এরশাদ আহমেদ।

তিনি বলেন, নিওর একটি জনপ্রিয় ও অতিপরিচিত ব্র্যান্ড। নিয়মিত গবেষণা, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মিশেলে নিওর কসমেটিকসের উন্নতমানের কারণেই এই জনপ্রিয়তা অর্জন সম্ভব হয়েছে। প্রতি বছর ইউএস ট্রেড শো’ চলাকালেই আমরা দেখি নিওরের স্টলে উপচে পড়া ভিড়।

তিনি বলেন, যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিওর আগামী দিনেও কসমেটিকস বাজারে সমান জনপ্রিয়তা বজায় রাখতে পারবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

গত ছাব্বিশ বছর ধরে বাংলাদেশে জনপ্রিয় এই কসমেটিকস ব্র্যান্ডের সঙ্গী হয়ে দেশ সেরা অভিনেতা অভিনেত্রীরাও যোগ দিয়েছেন অনুষ্ঠানে। নায়িকা অপু বিশ্বাস, নায়ক ফেরদৌস, ইমন, নীরবের বক্তৃতায় উঠে এসেছে অভিনয় জগতেও নিওর কসমমেটিকস ব্যবহার ও এর জনপ্রিয়তার কথা। অনুষ্ঠানের পুরো সময় জুড়ে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের কর্মকতাদের উপস্থিতি অনুষ্ঠানকে আরো আকর্ষণীয় করে তোলে। তারা বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও জনপ্রিয় ব্র্যান্ড নিওর নিয়ে বেশ আশাবাদী।

নায়িকা অপু বিশ্বাস বলেন, পুরোটাদিন আমাদের মেকাপ নিয়ে কাজ করতে হয়। আমার ক্যারিয়ারের প্রথমে যখন ভালোভাবে মেকাপ প্রোডাক্ট চিনতাম না তখন আমার আর্টিস্ট আমাকে নিওর দেন। এরপর থেকে আমি শুটিং এর মেকাপে নিওর ব্যাবহার করি।

নায়ক ফেরদৌস বলেন, রিমার্কের মাধ্যমে আজকের এই অনুষ্ঠান নিওরের প্রতি আমাদের আস্থা বাড়িয়েছে। নিওর কসমেটিকস বাজারে আরো নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে আমার প্রত্যাশা। নায়ক ইমন বলেন, নিওর আমাদের জন্য বড় পাওয়া। বাংলাদেশের নায়িকারা, মডেলরা নিওর এর প্রোডাক্ট ব্যবহার করছে। নিওর এখন নিভরতার প্রতিক।

গত বৃহস্পতিবার রাতে অনুষ্ঠিত জমকালো আয়োজনে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন রিমার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশরাফুল আম্বিয়া।

তিনি বলেন, নিওর বিশ্বের অন্যতম স্কিনকেয়ার ব্র্যান্ড। নিওর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে স্কিনকেয়ার ইন্ডাস্ট্রিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে যাচ্ছে এই ব্র্যান্ড। আজকের ইভেন্ট টি রিমার্ক আয়োজন করেছে নিওর এর প্রোডাক্টগুলো বাংলাদেশের বাজারে আরও ছড়িয়ে দিতে। সবার সহযোগিতা পেলে বাংলাদেশে নিওর দ্রুতই ছড়িয়ে যাবে। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী নিওরের ব্যাপক চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশি ও বিদেশি চাহিদা মেটানোর জন্য নিওর বাংলাদেশে ইন্ডাষ্ট্রি স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। সর্বোচ্চ প্রযুক্তি নির্ভর এই ইন্ডাষ্ট্রি হবে দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ ইন্ডাষ্ট্রি।

অনুষ্ঠানে নিওর কসমেটিকসের ব্যবহারিক দিকগুলো তুলে ধরেন দেশের খ্যাতনামা মেকআপ আর্টিস্ট ও ট্রেইনার শাহিদা আহসান ও বিখ্যাত ডার্মাটোলজিস্ট ডা. শারমিনা হক। শাহিদা হাসান বলেন, আমি এ ব্র্যান্ডের প্রতি পার্সোনালি উইক। মেকআপ আর্টিস্ট হিসেবে আমি ক্লায়েন্টকে নিওর এর ডিফারেন্ট প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে বলি। কারণ, নিওর এর সাথে জেনারেশন টু জেনারেশন এর সম্পর্ক। আর এখন এটি আরো মডার্ন আরও গুণগতমান সম্পন্ন। তিনি বলেন, আমরা অনেকেই এলার্জির জন্য আইলাইনার ব্যবহার করতে পারিনা। কিন্তু নিওর সে সমস্যা থেকে মুক্ত রেখে আইকনিক লুক তৈরি করে।

দেশের বিশিষ্ট ডার্মাটোলজিস্ট ডা. শারমিনা হক বলেন, একজন ডার্মাটোলজিস্ট হিসবে আমি এপ্রিসিয়েট করি নিওরকে। কারণ আমাদের দেশে হোক বিদেশে হোক, নিওর এর স্কিন কেয়ার পণ্যগুলো কার্যকরী উপাদানে ভরপুর। আমরা সবাই চাই সুন্দর স্কিন, যেটা নিওর এর স্কিনকেয়ারের মাধ্যমেই সম্ভব। নিওর এর স্কিন কেয়ার আমাদের প্রতিদিনের জীবনেই প্রয়োজনীয়।

রিমার্কের প্রেসিডেন্ট মিজানুর রহমান সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, নিওরের বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়তায় আমরাও শামিল হচ্ছি। আমাদের অংশীদারিত্ব শক্তিশালী হচ্ছে। যদিও নিওর উচ্চবিত্তের পণ্য, আমাদের জোরালো প্রচেষ্টা থাকবে এটিকে ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া। কারণ, এটি খুবই প্রয়োজনীয় একটি পণ্য। আমাদের আর্থসামাজিক অবস্থারও উন্নতি ঘটেছে। তাই সময়ের তাগিদে এটি ব্যবহার করা এখন মানুষের অধিকার। সে কারণেই আমরা প্রতিটি ঘরে পৌঁছে দিতে চাই নিওরের পণ্য। শেষে মনোজ্ঞ ফ্যাশন শো ও নৈশভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।