manobkantha

জালালাবাদ সোসাইটি অব মিশিগান’র নির্বাচন বয়কটের ডাক

জালালাবাদ সোসাইটি অব মিশিগান-এর দ্বিবার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর। নির্বাচনকে ঘিরে মিশিগানের বৃহত্তম এই সংগঠনে দেখা দিয়েছে প্রকাশ্য বিরোধ। নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে না জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন খলকু-মিজান প্যানেল।

রোববার (১৯ জুন) দুপুরে হ্যামট্রামিক সিটির একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করে খলকু-মিজান প্যানেল'র নেতৃবৃন্দ নির্বাচনী প্রক্রিয়ার বিভিন্ন জটিলতা থাকায় নির্বাচন বয়কটের ডাক দেন। 

খলকু-মিজান প্যানেলে সভাপতি পদপ্রার্থী ছিলেন জালালাবাদ সোসাইটির সাবেক উপদেষ্টা খলকুর রহমান। সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী ছিলেন হবিগঞ্জ জেলা অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি মিজান মিয়া জসিম এবং সাংগঠনিক সম্পাদক পদপ্রার্থী গোলাপগঞ্জ হ্যাল্পিং হ্যান্ডের সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুল হুদা খান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্যানেলের সভাপতি পদপ্রার্থী  খলকুর রহমান বলেন, সিলেটের একটি ঐতিহ্যবাহী সংগঠন জালালাবাদ সোসাইটি অব মিশিগান। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য আমরা এই পরিষদ গঠন করি। সবার অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, সেটাই ছিল আমাদের আশা এবং সিলেটবাসীর স্বপ্ন। এজন্য শুরু থেকে আমাদের প্যানেল ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা করেছে।

ইদানিং নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হওয়ার কোনো লক্ষণ নেই। আমাদের সমর্থক ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের পরামর্শে  আমরা এই নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। ভবিষ্যতে সব প্রার্থীর অংশগ্রহণে নির্বাচনের সুন্দর পরিবেশ তৈরি হলে আমাদের প্যানেল নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

এদিকে গত ১১ জুন নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার দিন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এনাম উদ্দিন একটি স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ ও অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দেওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। এজন্য মিশিগানে বসবাসরত বাংলাদেশি কমিউনিটির সহযোগিতা কামনা করেন। তাছাড়া প্রত্যেক প্যানেলকে নির্বাচনে আসার আহবান জানানো হয়।

মানবকণ্ঠ/এআই