manobkantha

পাকিস্তানে চীনা ইঞ্জিরিয়ারবাহী বাসে বোমা হামলায় নিহত ১৩

পাকিস্তানে চীনা ইঞ্জিনিয়ার বহনকারী একটি বাসে ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। দেশটির উত্তরাঞ্চলের খায়বার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের কোহিস্তানে বুধবার (১৪ জুলাই) এ ঘটনা ঘটে। এতে দুই পাকিস্তানি সেনাসহ অন্তত ১৩ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের নয়জন চীনের নাগরিক।

আল-জাজিরার খবরে বলা হয়ে, বুধবার ভোরে রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে ১১৮ মাইল উত্তরে ঘটে যাওয়া ওই হামলাকে পাকিস্তান সরকার অস্বীকার করে ‘যান্ত্রিক বিস্ফোরণ’ বলে মন্তব্য করেছে।

খবরে জানানো হয়, বাসটি কয়েক ডজন যাত্রী নিয়ে কোহিস্তানের দাসু জলবিদ্যুৎ প্রকল্পে যাচ্ছিল। চীনা ইঞ্জিনিয়াররা সে প্রকল্পে কাজ করতেন। বিস্ফোরণের পর বাসটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়।

রয়টার্স জানায়, বোমাটি রাস্তার পাশে পেতে রাখা হয়েছিল, না কি বাসের মধ্যেই ছিল, তা এখনও নিশ্চিত নয়। এ ঘটনায় এখনো কেউ দায় স্বীকার করেনি।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে আল-জাজিরাকে বলা হয়েছে, এটি কোনো হামলা নয়। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বাসটি খাদে পড়ে যায়। পরে গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ হয়ে থাকতে পারে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

তবে, বিস্ফোরণটিকে হামলা হিসেবে অভিহিত করেছে চীন। হামলায় নিহত চীনা ও পাকিস্তানি কর্মীদের জন্য শোক প্রকাশ করে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস-এপিকে বলেছেন, পাকিস্তান এই হামলার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের দ্রুত গ্রেপ্তার, শাস্তি এবং সে দেশে চীনা নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে বলে তারা আশা করেন।

চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডরের অংশ হিসেবে দক্ষিণ-পূর্ব চীন এবং আরব সাগরে পাকিস্তানের গোয়াদার বন্দরের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা তৈরি করা হচ্ছে। এতে যেসব নির্মাণ প্রকল্প রয়েছে তাতে বহু চীনা কর্মী কাজ করেন।

মানবকণ্ঠ/এনএস