manobkantha

বইপ্রেমী হারুন অর রশীদের সেলুনভিত্তিক পাঠাগার এবার নাটোরে

দেশে সেলুনভিত্তিক পাঠাগারের উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা তরুণ লেখক হারুন অর রশীদের উদ্যোগে সেলুনভিত্তিক পাঠাগার উদ্বোধন হলো এবার নাটোরের বঙ্গজ্বলে।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) বিকালে নাটোর শহরের বঙ্গজল শুভ হেয়ার ড্রেসারে সেলুনভিত্তিক পাঠাগারের উদ্বোধন করেন লেখক ও সমাজকর্মী খন্দকার উল্লাস। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নাটোর ইয়ুথ ব্লাড ডোনার গ্রুপের সভাপতি নাজমুল আহমেদ, উপদেষ্টা মাসুদ রানা এবং কার্যকরী সদস্য অমৃত কুমার প্রমূখ।

উদ্বোধনকালে লেখক খন্দকার উল্লাস বলেন, 'এটা একটা চমৎকার আইডিয়া। বই নিয়ে এ ধরণের উদ্যোগ সমাজকে আলোকিত করবে। তরুণ প্রজন্ম বইয়ের দিকে ধাবিত হবে।'

সেলুনভিত্তিক পাঠাগারের উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা হারুন অর রশীদ বলেন, জ্ঞানের উৎকর্ষতা সাধনে, মাদকমুক্ত ও আলোকিত সমাজ বিনির্মাণে বই পড়ার বিকল্প নেই। এভাবে আমরা ক্রমান্বয়ে সেলুনভিত্তিক পাঠাগার ছড়িয়ে দেব সারাদেশে।

উল্লেখ্য, ঢাকার নবাবগঞ্জে সেলুনে পাঠাগার স্থাপনের মাধ্যমে সেলুনভিত্তিক পাঠাগার নির্মাণের ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগের সূচনা করেন বইপ্রেমী হারুন অর রশীদ। গত মাসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এবং রাজশাহী শহরের সাগর ম্যানস হেয়ার ফ্যাশনে সেলুনভিত্তিক পাঠাগার নির্মাণ করেন তিনি। এর মাধ্যমে সকল শ্রেণি ও পেশার মানুষকে বই পাঠে আগ্রহী করে তুলতে পর্যায়ক্রমে দেশের ৬৪ জেলায় ১টি করে ৬৪টি সেলুনভিত্তিক পাঠাগার স্থাপন করা হবে বলে জানান বইপ্রেমী হারুন অর রশীদ।

সেলুনভিত্তিক পাঠাগারের উদ্যোক্তা তরুণ লেখক হারুন অর রশীদ কিশোরগঞ্জ জেলার কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া আব্দল্লাহপুরের মরহুম আসাদুল্লাহ মাষ্টারের ছেলে। পেশায় ব্যাংকার হলেও আপাদমস্তক বইপ্রেমী মানুষ তিনি। তরুণ প্রজন্মকে বইয়ের দিকে ধাবিত করতে গত ১০ বছর ধরে তিনি অনলাইনে ও অফলাইনে বই নিয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন।