manobkantha

সুস্থ থাকতে ইফতারের খাবার যেমন হবে

আজ থেকে শুরু হয়েছে পবিত্র মাস রমজান। রোজা পালনে রোজাদারদের সুস্থতা অতি অবশ্যক। তাই ইফতারের খাবারের দিকে একটু লক্ষ্য রাখা জরুরি। কেননা, বুঝেশুনে খাবার না খেলে এক রোজাদার গ্যাস্ট্রিকসহ নানা অসুবিধায় পড়তে পারেন।

তাই দেখে নেয়া উচিত ইফতারে কোন খাবার খাওয়া উচিত আর কোন খাবার খাওয়া উচিত নয়।

১. ইফতারে শরবত রাখবেন। চিনি ও লেবুর শরবত বেশ উপাদেয়। শরবত খাওয়ার পর বিভিন্ন ফল যেমন, পাকা আম, খেজুর, কলা খাওয়া যেতে পারে। পরবর্তীতে মুড়ি, ছোলা প্রভৃতি খেতে পারেন।

২. ইফতারে অনেকে খাবার মাখিয়ে খেতে পছন্দ। কিন্তু লক্ষ্য রাখা ভােলেঅ তবে খেয়াল রাখবেন যাতে মরিচ ও পেঁয়াজের পরিমাণ বেশি না হয়। কারণ অধিক স্বাদের জন্য বেশি পরিমাণ মরিচ-পেঁয়াজ গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

৩. অ্যাসিড সমৃদ্ধ ফল যেমন কাঁচা আম, আপেল, তেঁতুল, লেবু, বাতাবি লেবু, কামরাঙ্গা ইফতারের শুরুতে না খেয়ে শেষে খাওয়া ভালো। এতে আপনার শরীর চাঙ্গা হবে।

৪. সারাদিন না খেয়ে থাকার পর ইফতারে অধিক ভাজা ও তেল সমৃদ্ধ খাবার পেটে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই তেলে ভাজা খাবার কম খাওয়াই ভালো।

৫. ইফতারে কম মশলাযুক্ত খাবার খান। অধিক মশলাযুক্ত খাবার পেটে গ্যাস্ট্রিকের কারণে সৃষ্ট ক্ষত বাড়িয়ে তোলে এবং যন্ত্রণা বাড়িয়ে দেয়।

৬. ইফতারে খাওয়ার মাঝমাঝি দিকে পানি পান থেকে বিরত থাকতে হবে। এতে হজমে সহায়ক উপাদান সঠিকভাবে নিঃসৃত হবে।

৭. ইফতারে খালি পেটে চা-কফি খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। চা-কফি পেটে গ্যাস্ট্রিকের ব্যাথা বাড়িয়ে তুলতে পারে।