manobkantha

তৃতীয়বারের মতো লকডাউনে ফ্রান্স

বিশ্বজুড়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে করোনাভাইরাস। নতুন করে আতঙ্ক বাড়াচ্ছে করোনার ভিন্ন ভিন্ন ধরণ। এমন পরিস্থিতিতে তৃতীয়বারের মতো জাতীয় লকডাউনে প্রবেশ করেছে ফ্রান্স। আগামী চার সপ্তাহ দেশটিতে সব স্কুল ও অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

রোববার (৪ এপ্রিল) ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এ তথ্য।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত কারফিউ থাকবে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে দেশটিতে।

গত শুক্রবার দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালের আইসিইউতে গুরুতর করোনা রোগীর সংখ্যা একসঙ্গে বেড়েছে ১৪৫ জন। দেশটিতে গত পাঁচ মাসে একদিনে এরকম গুরুতর রোগীর চিত্র দেখা যায়নি। বর্তমানে প্রায় পাঁচ হাজার করোনা রোগী আইসিইউতে। শুক্রবার নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৪৬ হাজার ৬৭৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩০৪ জনের। এমন পরিস্থিতিতে হাসপাতালগুলোয় শয্যার সংখ্যা বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন।

শনিবার থেকে দেশটিতে লকডাউনের বিধিনিষেধ আসলেও মঙ্গলবার থেকে (৬ এপ্রিল) ফ্রান্সের কোনো নাগরিক প্রয়োজনীয় কারণ ছাড়া বাড়ি থেকে ১০ কিলোমিটারের বেশি যেতে পারবেন না।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।