manobkantha

করোনায় প্রাণ গেল সাংবাদিক সুকান্ত সেনের

সাংবাদিক সুকান্ত সেন
সাংবাদিক সুকান্ত সেন

প্রাণঘাতী করোনার কাছে হার মানলেন সাংবাদিক সুকান্ত সেন। আজ শনিবার (৫ নভেম্বর) ভোর ৬ টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। করোনার চিকিৎসা চলাকালে তাঁর মস্তিস্কে রক্তক্ষরণ ঘটে। এ কারণে তিনি সংজ্ঞাহীন ছিলেন।

সুকান্ত সেন সিরাজগঞ্জ থেকে প্রকাশিত দৈনিক যুগের কথা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক, সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক, দৈনিক মানবকণ্ঠের সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা ও আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

জানা যায়, গত ২০ নভেম্বর সুকান্ত সেন শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে ২১ নভেম্বর করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা প্রদান করেন। পরে তাঁর করোনা শনাক্ত হয়। তিনি বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। ২৩ নভেম্বর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার আরো অবনতি হলে চিকিৎসকের পরামর্শে ওই রাতেই তাকে এ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেওয়া হয়। এরপর ২৫ নভেম্বর তাকে ঢাকা মেডিকেলের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়। ২৯ নভেম্বর তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে রেফার্ড করা হয়। পরে ১ ডিসেম্বর দুপুরে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়।

নির্ভীক এই সাংবাদিক ছিলেন অন্যায়ে সঙ্গে আপসহীন। সুকান্ত সেন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক, সিরাজগঞ্জ টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক, সিরাজগঞ্জ জেলা রেড ক্রিসেন্টের আজীবন সদস্য, সিরাজগঞ্জ জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ডক্টরস ডায়গনষ্টিক ক্লিনিক লিঃ’র শাখা ব্যাবস্থাপক, সিরাজগঞ্জ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর নির্বাহী সদস্য, সিরাজগঞ্জ জেলার নাবিক নাট্যগোষ্ঠীর সদস্যসহ বিভিন্ন সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠনে দায়িত্বে ছিলেন।

শনিবার ভোরে তাঁর মৃত্যুর খবর সিরাজগঞ্জ শহরে এসে পৌঁছালে সিরাজগঞ্জের সাংবাদিক মহলসহ সর্বস্তরের জনগণের মাঝে শোকের নেমে আসে। তারা তাঁর সিরাজগঞ্জ শহরের ২নং খলিফাপট্টির ভাড়া বাসভবনে ছুটে গিয়ে ভিড় জমান। এ সময় তারা পরলোকগত সাংবাদিক সুকান্ত সেনের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন ও তাঁর বিদেহী আত্মার চিরশান্তি কামনা করেন।

মৃত্যুকালে তিনি মা, ভাই বোন, স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর পৈতৃক বাড়ি পাবনা শহরে হলেও তারা স্বপরিবারে সিরাজগঞ্জের চান্দাইকোণা ইউনিয়নের চান্দাইকোণা পাবনা বাজার এলাকায় বাড়ি করে স্থায়ী ভাবে বসবাস করতেন।

আজ বেলা ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জের ঘুড়কা মহা শ্মশানে তাঁর শেষ কৃর্ত্তানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

মানবকণ্ঠ/এইচকে/শুভ কুমার ঘোষ/সোহেল রানা সোহাগ