শাওন হত্যার প্রতিশোধ নিতে সরকারকে হঠাতে হবে: ফখরুল


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:০৭,  আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:১৭

মুন্সীগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে যুবদলকর্মী শাওনের হত্যার বিচার দাবিতে নয়াপল্টনে মরদেহ নিয়ে বিক্ষোভ করেছে বিএনপি। এ সময় জানাজায় অংশ নিয়ে সরকার পতনের হুঁশিয়ারি দেন বিএনপির নেতারা। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, শাওন হত্যার প্রতিশোধ নিতে সরকারের পতন ঘটাতে হবে।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) যুবদলকর্মী শাওনের লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্স যখন বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে জানাজার জন্য নিয়ে আসা হয়, তখনও বিক্ষোভ করছিলেন নেতাকর্মীরা। এ সময় শাওনের মরদেহে দলীয় পতাকা জড়িয়ে শুরু হয় জানাজা।

তিনি বলেন, ‘সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে বর্তমান সরকারের পতন ঘটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তাহলেই হবে শাওনের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা নিবেদন।

পল্টনে যখন শাওনের মরদেহ, তখন মোহাম্মদপুরে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে মহানগর উত্তরের বিএনপি। এ সময় নেতারা বলেন, হত্যার রাজনীতি করে ক্ষমতায় থাকতে পারবে না আওয়ামী লীগ। নির্দলীয় সরকারের অধীন নির্বাচনের দাবিও করেন তারা।

এ সময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান বলেন, ‘৯০- এর স্বৈরাচারবিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ফয়সালা হয়েছিল রাজপথে। অনেক শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা পেয়েছিলাম গণতন্ত্র। সেই গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করেছিলেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। আজ দেশে জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য, আমাদের নেতাকর্মীদের মুক্ত করার জন্য রাজপথে আবার গণ-অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে ফয়সালা হবে।’

এদিকে শাওন নিহতের পর থেকেই থমথমে অবস্থা গোটা মুন্সীগঞ্জ শহরে। এরই মধ্যে পুলিশের করা মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন ২৪ জন। শুক্রবারও মুন্সীগঞ্জে শাওনের বাসায় শোকের মাতম চলে। দরিদ্র পরিবারের পাঁচ সন্তানের মধ্যে শাওন ছিলেন বড়। সেই ছেলের ঘরে মাত্র আট মাসের সন্তান। এই সন্তানের ভরণপোষণের দায়িত্ব এখন কে নেবে, তাই নিয়ে স্ত্রীর দুর্ভাবনার শেষ নেই।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপুরে বিএনপির সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশসহ আহত হন অর্ধশত। গুরুতর আহত শাওন বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মানবকণ্ঠ/এমআই


poisha bazar