৩০ শতাংশের উপরেই থাকছে শনাক্তের হার


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩১ জুলাই ২০২১, ২০:০৩

দেশে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে সংক্রমণ ও মৃত্যু আশঙ্কাজনক বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ২৪ শতাংশ। গত সাতদিনের মধ্যে চারদিনই শনাক্ত ৩০ শতাংশের উপরে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের দেয়া করোনা সংক্রমণের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ হাজার ৯৮০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মাঝে করোনা শনাক্ত হয় ৯ হাজার ৩৬৯ জনের।

এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ হাজার ৪৪টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয় ১৩ হাজার ৮৬২ জনের। সেদিনও শনাক্তের হার ছিল ৩০ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

২৯ জুলাই স্বাস্থ্য অধিদফতরের দেয়া বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, তার আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন ১৫ হাজার ২৭১ জন। সেদিন ৫২ হাজার ২৮২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, শনাক্তের হার ছিল ২৯ দশমিক ২১ শতাংশ।

এছাড়া ২৮ জুলাই শনাক্তের হার ছিল ৩০ দশমিক ১২ শতাংশ, ২৭ জুলাই ২৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ, ২৬ জুলাই ২৯ দশমিক ৮২ শতাংশ এবং ২৫ জুলাই শনাক্তের হার ছিল ৩০ দশমিক ০৪ শতাংশ।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর পর গত বছরের জুন-জুলাই মাসে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলেও আগস্ট মাসের দিকে পরিস্থিতির উন্নতি হতে থাকে। চলতি বছরের মার্চে এসে আবার পরিস্থিতির অবনতি শুরু হয়।

এপ্রিলে এসে পরিস্থিতি খারাপ হলে সরকার লকডাউন ঘোষণা করে। এর মাঝেই দেশে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়।

জুনের মাঝামাঝি থেকে ক্রমান্বয়ে পরিস্থিতি খারাপ হতে থাকে। ১৪ জুন প্রায় ৫ সপ্তাহ পর করোনায় ৫৪ জনের মৃত্যু হয়। এরপর থেকে পরিস্থিতি প্রতিদিনই ক্রমান্বয়ে খারাপ হচ্ছে। প্রতিদিনই হচ্ছে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের নতুন রেকর্ড।

মানবকণ্ঠ/এসকে


poisha bazar

ads
ads