নতুন সেনাপ্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১০ জুন ২০২১, ১৮:১৯

সেনাবাহিনীর নতুন প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ওয়াহিদা সুলতানার স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ জুন এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর তিনি বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিএ-২৪৯৬ লেফটেন্যান্ট জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেলকে আগামী ২৪ জুন ২০২১ তারিখ অপরাহু থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে জেনারেল পদে পদোন্নতি প্রদানপূর্বক প্রতিরক্ষা-বাহিনীসমূহের প্রধানদের নিয়োগ, বেতন, ভাতা এবং অন্যান্য সুবিধা) আইন, ২০১৮ অনুসারে উক্ত তারিখ অপরাহ্ন থেকে ৩ (তিন) বৎসরের জন্য সেনাবাহিনী প্রধান হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হলো।

২০১৮ সালের ১৮ জুন আজিজ আহমেদকে সেনাপ্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। তিন বছর চাকরি শেষে আগামী ২৪ জুন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ অবসরে যাবেন। তার স্থলাভিষিক্ত হবেন শফিউদ্দিন আহমেদ।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল শফিউদ্দিন আহমেদ গত ৩০ ডিসেম্বর সেনা সদর দপ্তরের কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল-কিউএমজি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) থেকে তখন জানানো হয়, লেফটেন্যান্ট জেনারেল শফিউদ্দিন আহমেদ কিউএমজি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের আগে অ্যার্টডক-এর জিওসি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়া তিনি লজিস্টিকস এরিয়ার জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার, একটি পদাতিক ব্যাটালিয়ন, বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমির (বিএমএ) ব্যাটালিয়ন কমান্ডার, একটি পদাতিক ব্রিগেড ও সেনাসদর প্রশিক্ষণ পরিদপ্তরের পরিচালক পদে সাফল্যের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন।

২৩ ডিসেম্বর ১৯৮৩ সালে ৯ম বিএমএ দীর্ঘমেয়াদী কোর্সে পদাতিক কোরে কমিশন লাভ করেন। এছাড়াও ২০১২ সালে তিনি ১৯ পদাতিক ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কমান্ডিং হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত হন এবং নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। চাকরি জীবনে তিনি বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিআইআইএসএস) এর মহাপরিচালক এবং ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের সিনিয়র ডাইরেক্টিং স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি সেন্ট্রাল অফ্রিকান রিপাবলিক-এ ডেপুটি ফোর্স কমান্ডার হিসেবে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মিশনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

মানবকণ্ঠ/এনএস


poisha bazar

ads
ads