খালেদা জিয়াকে বিদেশ নিতে আদালতের সম্মতি লাগবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৪ মে ২০২১, ১৮:৪৮,  আপডেট: ০৪ মে ২০২১, ১৮:৫১

উন্নত চিকিৎসার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জরুরি ভিত্তিতে বিদেশে নেয়ার সুপারিশ করেছে তার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড। এমন প্রেক্ষাপটে এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দেশের বাইরে নিতে পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের অবেদন করা হয়নি।

এসময তিনি জানান, খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে হলে আদালতের সম্মতি লাগবে। মঙ্গলবার (৪ মে) বিকালে রাজধানীর ফার্মগেটে একটি অনুষ্ঠান শেষে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের বাইরে নিয়ে চিকিৎসার জন্য আবেদন করলে সেটি আদালতের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হবে। তবে খালেদা জিয়াকে দেশের বাইরে নিতে পরিবারের পক্ষ থেকে বা বিএনপির পক্ষ থেকে কোনো ধরনের অবেদন করা হয়নি।’

করোনায় আক্রান্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সোমবার থেকে শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। বর্তমানে তিনি রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে আছেন। এছাড়া তিনি বিভিন্ন রোগে ভুগছেন।

এর আগে মন্ত্রী পূর্ব রাজাবাজার নাজনীন স্কুলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে কর্মহীন অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যেখানে অন্যান্য দেশে জিডিপির হার কমে যাচ্ছে কিন্তু বাংলাদেশ সমানতালে এগিয়ে যাচ্ছে। এটাকেই বলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব। দেশ এগিয়ে গেলেও প্রধানমন্ত্রী গরিব মানুষের কথা ভুলে যাননি। তিনি কেবল আমাদের নেতা না, বিশ্বের নন্দিত নেতা। শেখ হাসিনা গরিব মানুষের কথা ভুলে যাননি।’

নিম্ন আয়ের মানুষ যাতে কষ্ট না হয় সেজন্য শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের পাশে দাঁড়াতে বলেছেন উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী দেশের ৩৫ লাখ গরিব মানুষের জন্য ২৫০০ টাকা করে দিচ্ছেন। কেউ যাতে বস্ত্র, খাদ্যে কষ্ট না পায় সেজন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে।’

শেরেববাংলা নগর থানা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এই ঈদ উপহার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শেরেবাংলা নগর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাব্বির হোসেন মাছুদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ঢাকা মহানগর উত্তরের আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্না কচি প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads
ads