বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মুজিব চেয়ার রাখার প্রস্তাব সংসদে


poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৪৮

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে জাতিকে বেশি করে জনবার সুযোগ দিতে প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘মুজিব চেয়ার’ নামে একটি পদ সৃষ্টির আবেদন জানিয়েছেন সাবেক হুইপ ও নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. শহীদুজ্জামান সরকার।

তিনি বলেছেন, আমাদের সবচাইতে বড় অর্জন যেমন স্বাধীনতা আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি। আমাদের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রক্ষা করতে পারি নাই। আমাদের এই ব্যর্থতা ঢাকবার কোন সুযোগ নাই। এই ব্যর্থতা আমাদের স্বীকার করতে হবে।

মঙ্গলবার অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি একথা বলেন। এর আগে ১৮ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতি ইংরেজী নববর্ষের প্রথম অধিবেশনে দিক নির্দেশনামূলক ভাষণ প্রদান করেন। পরে ১৯ জানুয়ারি চিফ হুইপ নূর ই আলম চৌধুরী রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করেন এবং সাবেক চিফ হুইপ উপাধক্ষ্য আব্দুস শহীদ সেই প্রস্তাব সমর্থন করেন।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গবেষণার সুযোগ সৃষ্টির দাবি করে শহীদুজ্জামান সরকার বলেন, আমাদের দেশে অনেকগুলো বিশ্ববিদ্যালয় আছে। সেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে আরো বেশি গবেষণা হওয়ার দরকার। আমাদের নিজেদের স্বার্থে, জাতির স্বার্থে বাঙালি জাতির এগিয়ে যাবার স্বার্থে এটি আমাদের করতে হবে। বঙ্গবন্ধু মুজিবকে আরো বেশি জানবার জন্য আরো বেশি জানাবার জন্য গবেষণা কর্মটি অতি অবশ্যই পালন করতে হবে। সেজন্য আপনার (স্পিকারের) মাধ্যমে আমি শিক্ষামন্ত্রীকে অনুরোধ করবো প্রধানমন্ত্রীর কাছে সবিনয় অনুরোধ করবো প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয় ‘মুজিব চেয়ার’ বলে আলাদা একটা পথ সৃষ্টি করা হোক। যেখানে বঙ্গবন্ধু মুজিবকে বাঙালি জাতির কাছে আরও বেশি প্রাণবন্ত করা যাবে, তুলে ধরা যাবে। এটি বঙ্গবন্ধুর স্বার্থে নয় বাঙালি জাতির স্বার্থে এটা করা দরকার।

তিনি বলেন, নতুন করে আবারো তারা ষড়যন্ত্র করছে, ষড়যন্ত্র কিন্তু থেমে নেই। তারা যারা পরাজিত শক্তি তারা কিন্তু থেমে নেই তারা রাজপথের আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। সেই ষড়যন্ত্রের এখনো চলছে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন কথায়।

‘সেই ষড়যন্ত্র ছিন্ন করবার সবচাইতে বড় উপায় হল জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকা এবং গোটা দেশের মানুষকে বিএনপি জামাতের ষড়যন্ত্র সম্পর্কে আমরা রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে অবগত করব, সতর্ক করব তার মাধ্যমে আমরা বিএনপি জামাতের ষড়যন্ত্র রুখে দিতে পারব বলে আমার বিশ্বাস। বিএনপির অবস্থা আজকে কি অবস্থা দেখছেন? তারা পথ হারা পথিকের মত। কপালকুণ্ডলা উপাখ্যান নবকুমারকে যেমন কপালকুণ্ডলা বলেছিল পথিক তুমি কি পথ হারিয়েছো। নবকুমারকে পথ দেখানোর জন্য কপালকুণ্ডলা উপাখ্যানে কপালকুণ্ডলা ছিল কিন্তু এই যে বিএনপিকে পথ দেখানোর কেউ নাই। এই উদভ্রান্তের পথহারা পথিকের মতো তাদেরকে ঘুরতে হবে। চিরদিনের জন্য নির্বাসিত হতে হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতার আদর্শ। এই মুজিব বর্ষে আমরা সবাই হৃদয়ে ধারণ করে আগামী দিনে এগিয়ে যাব এই বাংলাদেশকে জাতির পিতার যে সোনার বাংলায় করতে চেয়েছিলেন, যে রূপক অর্থে সোনার বাংলা বলেছিলেন, সেই সোনার বাংলা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা রূপ দিতে চাই। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে গোটা জাতিকে পুনঃ পুনঃ ঐক্যবদ্ধ হবার আহ্বান জানান তিনি।






ads
ads