২৪ ঘণ্টায় প্রাণ গেল ৩৫ জনের


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৫:৫৬,  আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬:২০

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৫ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬ হাজার ৮০৭ জন। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ১ হাজার ৮৮৮ জন।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে সংবাদ মাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির এই সবশেষ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় করোনা শনাক্তে গত একদিনে ১১৮টি পরীক্ষাগারে ১৩ হাজার ৫৪০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এসব পরীক্ষায় ১ হাজার ৮৮৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। তাদের নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪লাখ ৭৫ হাজার ৮৭৯ জনে দাঁড়ালো।

আইইডিসিআরের হিসাব অনুযায়ী, বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ২ হাজার ৪৫৭ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত এক দিনে। তাতে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৪০৮ জন হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৩.৯৪ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬.৭০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮২.৬৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচেনায় মৃত্যুর হার ১.৪৩ শতাংশ।

এদিকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে আরো প্রায় ১২ হাজার মানুষ মারা গেছেন। নতুন সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়েছে সাড়ে ৬ লাখেরও বেশি।

দিনে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে শুক্রবার মারা গেছে আড়াই হাজার মানুষ। মোট প্রাণহানি ছাড়িয়েছে ২ লাখ ৮৫ হাজার। সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে আরো ২ লাখের বেশি।


দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৮ শতাধিক মৃত্যু হয়েছে ইতালিতে।

এছাড়া ৫ শতাধিক করে মানুষ মারা গেছে ব্রাজিল, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, পোল্যান্ড, মেক্সিকোতে।


ভারতে এদিন মৃত্যু হয়েছে আরও প্রায় ৫শ’ মানুষের।

এ নিয়ে করোনায় বিশ্বে মৃত্যুবরণ করেছে ১৫ লাখ ২৫ হাজারের মতো মানুষ। মোট রোগী শনাক্ত হয়েছে ৬ কোটি ৬২ লাখের বেশি মানুষ।

এদিকে করোনায় বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২৪ জন মারা গেছেন। এসময় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ২৫২ জন। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) বিকালে স্বাস্থ্য অধিদফতর এক বুলেটিনে এই তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞতিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ২ হাজার ২৫২ জনকে নিয়ে দেশে আক্রান্তে সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৭৩ হাজার ৯৯১ জন। আরো ২৪ জনের মৃত্যুতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৭৭২ জন।

গত একদিনে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ২ হাজার ৫৭২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এ নিয়ে সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৯০ হাজার ৯৫১ জন হয়েছে।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ। এর ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনে করোনাভাইরাসের উপদ্রব শুরু হয়। এটি বর্তমানে বিশ্বের ২১৩ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। ১১ মার্চ কোভিড ১৯-কে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

মানবকণ্ঠ/এইচকে






ads