এশিয়ায় করোনা সক্রিয় রোগীর দিক থেকে তৃতীয় বাংলাদেশ


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২১ নভেম্বর ২০২০, ১৬:৫৭,  আপডেট: ২১ নভেম্বর ২০২০, ১৭:৫০

গত একদিনে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ২৮ জন মারা গেছেন। ফলে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৫০ জন। অন্যদিকে এ পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসে শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৪৫ হাজার ২৮১ জনে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, দেশে করোনা সক্রিয় আছে এমন রোগীর সংখ্যা ৭৮ হাজার ৫৭৯ জন। এদিক থেকে এশিয়ায় সক্রিয় রোগীর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়।

প্রথম অবস্থানে আছে ভারত, দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৩৯ হাজার ৭২৫ জন এবং দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ইরান, যেখানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা এক লাখ ৯৫ হাজার ৪৫৬ জন।

এছাড়া মোট শনাক্তে বাংলাদেশের অবস্থান এশিয়ায় পঞ্চম, আর সুস্থতার দিক দিয়ে অবস্থান সপ্তম।

শনিবার (২১ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতর প্রকাশিত নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৪৫৮টি, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৬৪৩ টি। এখন পর্যন্ত মোট ২৬ লাখ ৩৫ হাজার ২০২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৬১ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৬ দশমিক ৯০ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮০ দশমিক ৯৩ শতাংশ এবং মৃত্যু হার এক দশমিক ৪৩ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে ১৮ জন পুরুষ এবং ১০ জন নারী। এখন পর্যন্ত পুরুষ ৪ হাজার ৮৮১ জন এবং নারী মৃত্যুবরণ করেছেন এক হাজার ৪৬৯ জন।

বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারী ২৮ জনের মধ্যে ৬০ ঊর্ধ্ব ১৯ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন এবং ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩ জন, রাজশাহী বিভাগে ৩ জন, খুলনা ও বরিশাল বিভাগে ২ জন করে এবং সিলেট ও রংপুর বিভাগে একজন করে রয়েছেন।

এদিকে দেশে শীতের প্রভাবে করোনায় মৃত্যু আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। ফলে সুস্থ থাকতে স্বাস্থ্যবিধি মানার ওপর জোর দিচ্ছে সরকার।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads