করোনায় মৃত্যু হার ফের ঊর্ধ্বমুখী

- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১৬:০৪,  আপডেট: ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১৬:২১

চীনের উহান শহর থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচ হাজার ৮৩৮ জন। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৩৩৫ জন। ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল চার লাখ এক হাজার ৫৮৬ জনে।

গতকাল সোমবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল ১৫ জনের। আর নতুন করে শনাক্ত হয়েছিল এক হাজার ৪৩৬ জন।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) বিকালে স্বাস্থ্য অধিদফতর এক বুলেটিনে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির সর্বশেষ এই তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ২০ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ১৪ জন এবং নারী ছয়জন। তারা সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে দেশে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচ হাজার ৮৩৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণ করা ২০ জনের মধ্যে দশোর্ধ্ব একজন, বিশোর্ধ্ব একজন, ত্রিশোর্ধ্ব একজন, চল্লিশোর্ধ্ব দুইজন,পঞ্চাশোর্ধ্ব তিনজন এবং ষাটোর্ধ্ব ১২ জন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৭ জন, চট্টগ্রামে দুইজন ও খুলনা একজন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১১১টি পরীক্ষাগারে ১২ হাজার ৩৮৬টি নমুনা সংগ্রহ ও ১২ হাজার ৬১৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ৩৩৫ জন। ফলে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল চার লাখ এক হাজার ৫৮৬ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৫২৩ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থের সংখ্যা দাঁড়াল তিন লাখ ১৮ হাজার ১২৩ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ৩৭ লাখ ৭৫ হাজার ৮১৩ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৫০৯ জন। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন তিন কোটি ২১ লাখের বেশি মানুষ।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। যুক্তরাষ্ট্রের পরেই সংক্রমণে এগিয়ে রয়েছে ভারত, ব্রাজিল, রাশিয়া, কলম্বিয়া, পেরু, মেক্সিকো, স্পেন, দক্ষিণ আফ্রিকা, আর্জেন্টিনা।

তালিকায় শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের সবকটি অঙ্গরাজ্যেই বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৯ লাখ ৬২ হাজার ৭৮৩ জন। মৃত্যু হয়েছে দুই লাখ ৩১ হাজার ৪৫ জনের।

দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯ লাখ ৪৫ হাজার ৮৮৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ১৯ হাজার ৫৩৫ জনের।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় ৫৪ লাখ ১১ হাজার ৫৫০ জন আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৫৭ হাজার ৪৫১ জনের।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৩১ হাজার ২২৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ২৬ হাজার ২৬৯ জন।

পঞ্চম স্থানে উঠে আসা স্পেনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লাখ ৬৫ হাজার ২৭৮ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৫ হাজার ১৮ জনের।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads