করোনায় মৃত্যু-শনাক্তের হার ফের উর্ধ্বগতি

- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১৬:২২

চীনের উহান শহর থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচ হাজার ৮০৩ জনে। এছাড়া নতুন করে আরও এক হাজার ৩০৮ জন ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হওয়া মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল তিন লাখ ৯৮ হাজার ৮১৫ জন।

গতকাল শনিবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল ১৯ জনের। আর নতুন করে শনাক্ত হয়েছিল ১ হাজার ৯৪ জন।

রোববার (২৫ অক্টোবর) বিকালে স্বাস্থ্য অধিদফতর এক বুলেটিনে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির সর্বশেষ এই তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১১টি ল্যাবরেটরিতে ১১ হাজার ৭৫৭টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১১ হাজার ১০৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষা সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৮৯টি। নমুনা পরীক্ষায় নতুন এক হাজার ৩০৮ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে করোনা আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল তিন লাখ ৯৮ হাজার ৮১৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ১৯ জন এবং নারী চারজন। তাদের সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল পাঁচ হাজার ৮০৩ জন।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ২৩ জনের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব একজন, চল্লিশোর্ধ্ব তিনজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব তিনজন এবং ষাটোর্ধ্ব ১৬ জন।

বিভাগ অনুযায়ী, ২৩ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রামে একজন, খুলনা একজন, রাজশাহী একজন ও রংপুর বিভাগে একজন রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা এক হাজার ৫৪৪ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা তিন লাখ ১৫ হাজার ১০৭ জন।

এ পর্যন্ত করোনায় মোট মৃতের মধ্যে পুরুষ চার হাজার ৪৭১ জন (৭৭ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ) ও নারী এক হাজার ৩৩২ জন (২২ দশমিক শূন্য ৯৫ শতাংশ)।

য়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমান বিশ্বে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ কোটি ২৯ লাখ ৪৩ হাজার ২২৬। এর মধ্যে ১১ লাখ ৫৪ হাজার ৮৪৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে। ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে তিন কোটি ১৬ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৬জন।

করোনা সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে আগেই আসে ইউরোপীয় অঞ্চলের দেশগুলোর নাম। মাঝে কিছুটা স্থির হলেও সেখানে আবারও নতুন করে রোগটির প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তবে আশার কথা হচ্ছে, এখন আক্রান্তের পর সুস্থ হওয়ার হারও দ্রুত বাড়ছে। এদিকে সেকেন্ড ওয়েভের সংক্রমণ দ্রুত বাড়ছে আমেরিকার দুই মহাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ায় দেশগুলোতে।

জরিপ সংস্থাটির তথ্য বলছে, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৮ লাখ ২৭ হাজার ৯৩২ জন। মৃত্যু হয়েছে দুই লাখ ৩০ হাজার ৬৮ জনের।

দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ৭৮ লাখ ৬৩ হাজার ৮৯২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ১৮ হাজার ৫৬৭ জনের। তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় ৫৩ লাখ ৮১ হাজার ২২৪ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৫৬ হাজার ৯২৬ জনের।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১৪ লাখ ৯৭ হাজার ১৬৭ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ২৫ হাজার ৮২১ জন। পঞ্চম স্থানে উঠে আসা স্পেনে করোনায় সংক্রমণের সংখ্যা ১১ লাখ ১০ হাজার ৩৭২ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৪ হাজার ৭৫২ জনের।

অন্যদিকে উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫ হাজার ৫৭৮ জন। এর মধ্যে চার হাজার ৬৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও দেশটির বিরুদ্ধে প্রকৃত পরিস্থিতি গোপন করার অভিযোগ রয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads