শারদে বিদায়ের সুর


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪১,  আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪২

ষষ্ঠী থেকে একে একে আজ নবমী। শারদীয় দুর্গোৎসবের মুখরতায় ধীরে নামছে বিদায়ের সুর। একদিন পরেই ভক্তদের কাঁদিয়ে দেবী।

দেবী এবার এসেছেন দোলায় চড়ে, ফিরবেন গজে। নবমীতে সকাল ৫টা ১৭ মিনিট থে সাড়ে ৭টা পর্যন্ত মহানবমী কল্পারম্ভ ও মহানবমীর বিহিত পূজা, সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটে দশমীর বিহিত পূজা ও দর্পণ নিরঞ্জন। এই দিন অগ্নিকে প্রতীক করে দেবীকে আহুতি দেওয়া হয়। অগ্নি সব দেবতার যজ্ঞভাগ বহন করে যথা স্থানে পৌঁছে দিয়ে থাকেন। এদিন দুর্গাপূজার অন্তিম দিন। পরের দিন কেবল বিজয়া ও বিসর্জনের দিন। এ কারণে নবমীর রাত হয় উৎসবের রাত। এছাড়া নবমীর সকাল থেকেই মণ্ডপে মণ্ডপে মা দুর্গাকে দেখার জন্য ভিড় হয় দর্শনার্থীদের।

তবে এবার করোনাভাইরাস মহামারির কারণে পূজার আয়োজন করা হয়েছে সীমিতি পরিসরে। উৎসব সংশ্লিষ্ট বিষয় পরিহার করে সাত্ত্বিক পূজায় সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। আজ নবমীর দিনে মণ্ডপে মণ্ডপে প্রসাদ বিতরণ এড়ানো হয়েছে। সেইসঙ্গে সন্ধ্যায় আরতিও বন্ধ থাকবে। ভক্ত সমাগম যেন না ঘটে এজন্য সন্ধ্যার আগে বন্ধ করা হবে পূজা মণ্ডপ।

এদিকে বিজয়া দশমীতে এবার বিজয়ার শোভাযাত্রা হবে না। মন্দিরগুলো তাদের নিজ নিজ ব্যবস্থাপনায় প্রতিমা বিসর্জনের দিবে বলেও জানিয়েছে পূজা উৎযাপন পরিষদ।

যা তার আগের বছরের চাইতে ৪৮৩টি বেশি। আর এবার মণ্ডপ কমেছে গত বছরের চাইতে ১ হাজার ১৮৫টি।

সারা দেশে এবার মোট ৩০ হাজার ২৩১টি মণ্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। যা আগের বারের তুলনায় ৪৮৩টি বেশি। তবে গতবারের থেকে করোনার কারণে এবার এক হাজার ১৮৫টি মণ্ডপ কমেছে।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads