একনেকে ১৭শ কোটি টাকার ৪ প্রকল্প অনুমোদন


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২০ অক্টোবর ২০২০, ১৭:৩৮,  আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০২০, ১৭:৪০

১ হাজার ৬৬৮ কোটি ২৯ লাখ টাকা ব্যয়ে দেশের মোট চারটি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ নির্বাহী কমিটি (একনেক)।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম।

অনুমোদিত প্রকল্পসমূহ হলো- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের ‘যশোর বিমানবন্দর, সৈয়দপুর বিমানবন্দর ও শাহ মখদুম বিমানবন্দর, রাজশাহী এর রানওয়ে সারফেসে অ্যাসফল্ট কংক্রিট ওভারলেকরণ’ প্রকল্প; স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের দুটি প্রকল্প যথাক্রমে ‘নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কদমরসুল অঞ্চলে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য ভূমি অধিগ্রহণ ও উন্নয়ন’ প্রকল্প ও ‘মাদারীপুর, শরীয়তপুর ও রাজবাড়ী জেলা গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন (প্রথম সংশোধিত)’ প্রকল্প; কৃষি মন্ত্রণালয়ের ‘ভূ-উপরস্থ পানি উন্নয়নের মাধ্যমে বৃহত্তর দিনাজপুর ও জয়পুরহাট জেলায় সেচ সম্প্রসারণ’ প্রকল্প।

গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি বৈঠকে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। বাকি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ও সচিবরা শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে বৈঠকে অংশ নেন।

প্রকল্পের আওতায় যশোর, সৈয়দপুর ও রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমানবন্দরে নিরাপদ উড্ডয়ন ও অবতরণ নিশ্চিত করতে ৫৬৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা ব্যয়ে তিন বিমানবন্দরের রানওয়ে উন্নয়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। যশোর বিমানবন্দরে ২৮০ মিলিমিটার, সৈয়দপুর বিমানবন্দরে ২১০ মিলিমিটার এবং শাহ মখদুম বিমানবন্দরে ২৭০ মিলিমিটার পুরুত্বের অ্যাসফল্ট কংক্রিট ওভারলেকরণ করা হবে বলেও জানা গেছে।

প্রকল্পটির মাধ্যমে বিমানবন্দরগুলোর এয়ারফিল্ড গ্রাউন্ড লাইটিং (এজিএল) সিস্টেমের আধুনিকায়ন, রানওয়ে সাইড-স্ট্রিপসহ ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং প্রতিটি বিমানবন্দরের জন্য পর্যাপ্ত ধারণক্ষমতার একটি করে আধুনিক অগ্নিনির্বাপনী গাড়ি কেনা হবে।

প্রকল্পের বিষয়ে সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, বৈঠকে এক হাজার ৬৬৮ কোটি ২৯ লাখ টাকা ব্যয়ের মোট চারটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ১ হাজার ৫২৪ কোটি ৭৮ লাখ টাকা এবং সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ১৪৩ কোটি ৫১ লাখ টাকা যোগান দেওয়া হবে।

বৈঠকে অনুমোদন পাওয়া বাকি তিন প্রকল্প হচ্ছে-

ভূ-উপরিস্থ পানি উন্নয়নের মাধ্যমে বৃহত্তর দিনাজপুর ও জয়পুরহাট জেলায় সেচ সম্প্রসারণ প্রকল্প। এর ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫১ কোটি ১৫ লাখ টাকা।

মাদারীপুর, শরীয়তপুর ও রাজবাড়ী জেলা গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন (১ম সংশোধিত) প্রকল্প। প্রকল্পটিতে ব্যয় বাড়ছে ৫৪৯ কোটি টাকা।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কদমরসুল অঞ্চলে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য ভূমি অধিগ্রহণ ও উন্নয়ন প্রকল্প। এতে ব্যয় হবে ৩০১ কোটি ৩৫ লাখ টাকা।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads