তুলে নিয়ে যাওয়ার খবর ঠিক নয় : সিফাত

তুলে নিয়ে যাওয়ার খবর ঠিক নয় : সিফাত
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ আগস্ট ২০২০, ১৮:৩৫

নম্বরবিহীন গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে যেই গুঞ্জনটি গণমাধ্যমে ছড়িয়েছে সেটি ঠিক নয় বলে দাবি করেছেন জামিনে মুক্তি পাওয়া শাহেদুল ইসলাম সিফাত ও শিপ্রা দেবনাথ। সোমবার (১০ আগস্ট) রাতে কক্সবাজারের একটি আবাসিক হোটেলে গণমাধ্যমকে তারা একথা জানান।

সিফাত তার বিরুদ্ধে করা মামলায় ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করে বলেন, তিনি কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে বের হওয়ার পর একটি নম্বরবিহীন গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে যেই গুঞ্জনটি গণমাধ্যমে ছড়িয়েছে সেটি ঠিক নয়। ওই গাড়িটি তার পারিবারিক গাড়ি ছিল।

শিপ্রা বলেন, ‘প্লিজ, প্রে ফর আস। সিফাত ও আমি আপনাদের প্রতি অনেক কৃতজ্ঞ। আপনারা আমাদের পাশে ছিলেন, পাশে থাকবেন। আপাতত এতটুকুই বলার আছে। আমরা প্রত্যেকটা কথা বলবো।’

সিফাত সাংবাদিকদের বলেন, ‘অনেক গণমাধ্যমে আমার পায়ে গুলি লেগেছে বলে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। এটা সঠিক নয়। মানসিকভাবে ও শারীরিকভাবে আমি সম্পূর্ণ সুস্থ আছি। আমার পায়ে গুলি লাগেনি। আশা করি সুষ্ঠু তদন্ত হবে। আমরা রাষ্ট্রের কাছে কৃতজ্ঞ।’

তিনি আরও বলেন, ‘এতদিন জেলে ছিলাম তাই কিছুই জানতে পারিনি। এখন জেল থেকে বের হয়ে দেখছি প্রায় সব মিডিয়া আমাদের জন্য লিখেছে।’

শিপ্রা ও সিফাত তাদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে রয়েছেন। সোমবার দুপুরে সিফাত এবং মঙ্গলবার শিপ্রা কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

৩১ জুলাই রাত সাড়ে ৯টার দিকে টেকনাফ থেকে কক্সবাজার আসার পথে টেকনাফের শামলাপুর চেকপোস্টে তল্লাশির নামে অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদকে গুলি করে হত্যা করে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের প্রত্যক্ষদর্শী সিফাতকে আটক করে তার বিরুদ্ধে দু’টি মামলা করে তাকে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ। আর শিপ্রাকে হিমছড়ির নীলিমা রিসোর্ট থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মানবকণ্ঠ/আরএস

 





ads







Loading...