করোনার ভুয়া রিপোর্ট, দোষ স্বীকার রিজেন্টের এমডির

করোনার ভুয়া রিপোর্ট, দোষ স্বীকার রিজেন্টের এমডির
রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মিজানুর রহমান - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৭:৩০

মেট্রোরেলের শ্রমিকদের করোনার ভুয়া নেগেটিভ রিপোর্ট দেওয়ার মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মিজানুর রহমান দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

বুধবার (০৫ আগস্ট) ১০ দিনের রিমান্ড শেষে মিজানুর রহমানকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উত্তরা পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইয়াদুর রহমান।

মিজানুর রহমান স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বাকী বিল্লাহ তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গত ২৫ জুলাই মিজানুর রহমানের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

তার আগে ২৪ জুলাই দিবাগত রাতে গোপালগঞ্জের একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ।

এর আগে মেট্রোরেল প্রকল্পে কর্মরত ৭৬ জন কর্মীকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে গত ২০ জুলাই দিনগত রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. শাহেদ করিমসহ হাসপাতালের কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মেট্রোরেলের একটি সাব-কন্ডাক্টর প্রতিষ্ঠানের পক্ষে রেজাউল করীম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মেট্রোরেলে কর্মরত ৭৬ জন কর্মীর করোনা পরীক্ষা করা হয় রিজেন্ট হাসপাতালে। এজন্য পরীক্ষা প্রতি সাড়ে তিন হাজার করে টাকা নেওয়া হয়। কিন্তু টেস্ট না করেই ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ায় কর্মীদের মধ্যে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে।

মানবকণ্ঠ/আরএস

 





ads







Loading...