২১০০ সালে দেশে জনসংখ্যা কমে অর্ধেকে নামবে

২১০০ সালে দেশে জনসংখ্যা কমে অর্ধেকে নামবে
- প্রতিবেদক

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫ জুলাই ২০২০, ১৮:২৫

২১০০ সালে বাংলাদেশে জন্মহার ১ দশমিক ১৯ শতাংশ হতে পারে। আর একারণে সেসময় বাংলাদেশের জনসংখ্যা কমে আট কোটি ১৩ লাখে পৌঁছাতে পারে। বুধবার আন্তর্জাতিক গবেষকদের একটি দল ল্যানসেট সাময়িকীতে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২১০০ সালের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যা ৮৮০ কোটিতে পৌঁছবে। অবশ্য জাতিসংঘের পূর্বানুমানের চেয়ে এই সংখ্যা ২০০ কোটি কম। জন্মহার হ্রাস এবং প্রবীণদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় বিশ্বে ক্ষমতার নতুন মেরুকরণ ঘটবে।

এতে বলা হয়, আগামী ৮০ বছরে বাংলাদেশের জনসংখ্যা কমে আট কোটি ১৩ লাখে পৌঁছবে। আর ২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘ ঘোষিত টেক উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হলে এই সংখ্যা আরও কমবে।

প্রকাশিত তালিকায় দেখা গেছে, ২০১৭ সালে বাংলাদেশের জনসংখ্যা ছিল ১৫ কোটি ৬৯ লাখ। ২১০০ সালের এই সংখ্যা কমে আট কোটি ১৩ লাখে পৌঁছতে পারে। অবশ্য ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করলে তা আরও কমে হবে সাত কোটি ৪১ লাখ। ২০৩৯ সালে বাংলাদেশের জনসংখ্যা সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছতে পারে। ওই সময় মোট জনসংখ্যা হতে পারে প্রায় ১৭ কোটি ৩৪ লাখ।

তালিকায় ৮০ বছরে জন্ম হার প্রায় অর্ধেক কমার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে বাংলাদেশে জন্মহার ছিল প্রায় ২ শতাংশ। ২১০০ সালে এটি হতে পারে ১ দশমিক ১৯ শতাংশ। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাগুলো অর্জন করলে তা আরও কমে ১ দশমিক ১৭ শতাংশ হবে।

মানবকণ্ঠ/আরএস





ads






Loading...