দুই আসনেই আ'লীগ প্রার্থীর বিজয়

দুই আসনেই আ'লীগ প্রার্থীর বিজয়
বামে শাহীন চাকলাদার, ডানে শাহাদারা মান্নান শিল্পী - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ জুলাই ২০২০, ২১:৫৩,  আপডেট: ১৪ জুলাই ২০২০, ২১:৫৬

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে যশোর-৬ (কেশবপুর) ও বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনে উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। যশোরে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, বগুড়াতে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শাহাদারা মান্নান শিল্পী।

মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতিতে এ দুই আসনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। রাতে ভোট গণনা শেষে বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

কেশবপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার বজলুর রশীদ ভোট গণনা শেষে এই ফলাফল ঘোষণা করেন।

কেশবপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার বজলুর রশীদ ঘোষিত ফলাফলে জানান, আওয়ামী লীগ প্রার্থী শাহীন চাকলাদার নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১ লাখ ২৪ হাজার ৩ ভোট, বিএনপির প্রার্থী আবুল হোসেন আজাদ ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ হাজার ১২ ভোট ও জাতীয় পার্টির হাবিবুর রহমান লাঙল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ৬৭৮। নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৬৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

এদিকে বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে নির্বাচন বর্জন করায় মাঠে ছিলেন না আবুল হোসেন আজাদ।

কেশবপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার বজলুর রশীদ জানান, কেশবপুর আসনে মোট ২ লাখ ৩ হাজার ১৮ জন ভোটারের মধ্যে ১ লাখ ২৯ হাজার ৬৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। এর মধ্যে বাতিল হয়েছে ১ হাজার ৩৭৪ ভোট।

অপরদিকে বগুড়া-১ আসনে নৌকা মার্কায় নির্বাচন করে এক লাখ ৪৫ হাজার ৯৬৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শাহাদারা মান্নান শিল্পী। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াসির রহমতুল্লাহ ট্রাক প্রতীকে পেয়েছেন এক হাজার ২১৮ ভোট।

বগুড়া-১ আসনে সংসদ উপনির্বাচনে এমপি পদে এবার ছয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের স্ত্রী সারিয়াকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাদারা মান্নান (নৌকা), জাতীয় পার্টির প্রার্থী অধ্যক্ষ মোকছেদুল আলম (লাঙল), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক পার্টির মো. রনি (বাঘ), খেলাফত আন্দোলনের প্রার্থী প্রভাষক নজরুল ইসলাম (বটগাছ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ (ট্রাক)।

এছাড়া বিএনপি প্রার্থী একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির (ধানের শীষ) নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন করেননি।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, গত ১৮ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে বগুড়া-১ আসন শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এরপর উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয় ২৯ মার্চ। করোনার কারণে সেই তারিখে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়ে আবারও তারিখ নির্ধারণ করা হয়। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে ১৮০ দিনের মধ্যে উপনির্বাচন করার নিয়ম থাকায় ১৪ জুলাই ভোটগ্রহণ করা হয় বগুড়া-১ আসনে।

বগুড়া জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুবুল আলম শাহ বলেন, সারিয়াকান্দি উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১২টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৭৭ হাজার ৩৫২ জন এবং সোনাতলা উপজেলার একটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৫৩ হাজার ৫৬৬ জন। বন্যা ও করোনার মাঝে সাংবিধানিক কারণে ভোট হলেও স্বাস্থ্যসেবা মেনে ভোটগ্রহণ হয়। বগুড়া-১ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৩০ হাজার ৯১৮ জন।

মানবকণ্ঠ/এআইএস





ads






Loading...