অনিয়মে এবার চাকরিচ্যুত হলো ডিএসসিসি’র এল এস


poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১২ জুলাই ২০২০, ২০:৩২,  আপডেট: ১২ জুলাই ২০২০, ২০:৪৫

এবার অনিয়মে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) রাজস্ব বিভাগের লাইসেন্স ও বিজ্ঞাপন সুপারভাইজার (এল এস) ইকবাল আহমেদকে চাকরি হতে অপসারণ করা হয়েছে। রোববার ডিএসসিসির সচিব আকরামুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে তাকে চাকরি হতে অপসারণ করা হয়।

ডিএসসিসি’র চাকরি বিধিমালা ২০১৯ এর বিধি ৬৪(২) মোতাবেক জনস্বার্থে এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের স্বার্থ রক্ষার্থে তাকে চাকরি হতে অপসারণ করা হয়েছে বলে অফিস আদেশ উল্লেখ করা হয়। তিনি বিধি মোতাবেক ৯০ দিনের বেতন নগদ পাবেন এবং এজন্য তাকে কর্পোরেশন হিসাব বিভাগের সাথে অতিসত্বর যোগাযোগ করে সকল দেনা পাওনা বুঝে নিতেও অফিস আদেশে নির্দেশনা প্রদান করা হয়। জনস্বার্থে জারিকৃত এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে আদেশ উল্লেখ রয়েছে।

ডিএসসিসি সূত্রে জানা যায়, ইকবাল আহমেদ প্রকৌশল বিভাগ, বাজার (বিদ্যুৎ) বিল সরকারি হিসেবে ডিএসসিসিতে কর্মরত হলে বর্তমানে তিনি সংযুক্তিতে অঞ্চল-৫ এর রাজস্ব বিভাগে লাইসেন্স ও বিজ্ঞাপন সুপারভাইজার হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে তার ব্যক্তিগত নথি পর্যালোচনায় দেখা যায়, ইকবাল আহমেদ ইং ২৩/০৪/২০০৮ তারিখে মাদকদ্রব্য বহনের অপরাধে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হন এবং পরবর্তীতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়। এছাড়া দায়িত্ব পালনে অবহেলা, অসদাচরণ, তহবিল তছরুপ ও প্রতারণার দায়ে ইতোমধ্যে তার বিরুদ্ধে ১৬/১১/২০১৬, ১৩/০৪/২০১৭ ও ০৪/১১/২০১৮ তারিখে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়। এছাড়া হয়রানি ও ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে তাকে ডিএসসিসি’র ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড এর তত্কালীন কাউন্সিলর হাজী মোহাম্মদ মাসুদ (বর্তমানেও কাউন্সিলর) ৩১/০৫/২০১৮ তারিখে কর্পোরেশন বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

উল্লেখ্য, ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস দায়িত্ব গ্রহণের পর গত প্রায় দুই মাসে অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বোচ্ছাচারিতার অভিযোগে শীর্ষ দুই দুর্নীতিবাজসহ ৫ জনকে চাকরিচ্যুত করেছেন।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

 





ads






Loading...