রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকরা জুনের বেতন পাবেন আগামী সপ্তাহে

মানবকণ্ঠ
বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৩ জুলাই ২০২০, ১৪:১৯

আগামী সপ্তাহেই জুন মাসের বেতন পাবেন পাটকল শ্রমিকরা। এছাড়া গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের আওতায় রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকরা কে কত টাকা পাবেন তা আগামী ৩ দিনের ভেতর জানা যাবে।

আজ শুক্রবার (৩ জুলাই) শ্রমিকদের ‘শতভাগ’ পাওনা বুঝিয়ে দিয়ে দেশের রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলসমূহের উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণার বিষয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী।

সিদ্ধেশরীতে মন্ত্রীর বাসভবনে এ সংবাদ সম্মলন আয়োজিত হয়।

প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের সূত্র ধরে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী জানান, মজুরি কমিশন-২০১৫ অনুযায়ী পাটকল শ্রমিকদের জুন মাসের মজুরি আগামী সপ্তাহে তাদের ব্যাংক হিসাবে পরিশোধ করা হবে। নোটিশ মেয়াদের অর্থাৎ জুলাই-আগস্টের ৬০ দিনের মজুরিও উভয় মাসে যথারীতি পরিশোধ করা হবে।

তিনি বলেন, পিএফ, গ্র্যাচুইটি ও গোল্ডেন হ্যান্ডশেক সুবিধাসহ অবশিষ্ট সকল পাওনার অর্ধেক ব্যাংক হিসাবে এবং বাকী অর্ধেক সঞ্চয়পত্র আকারে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে পরিশোধ করা হবে। সব ক্ষেত্রেই মজুরি কমিশন-২০১৫ এর ভিত্তিতেই পাওনা হিসাব করা হবে।

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, পিপিপির আওতায় মিলগুলি আবার চালু হলে সেখানে পুরনো শ্রমিকদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধের জন্য ব্যাংক হিসাব নম্বর অবিলম্বে বিজেএমসিকে জানাতেও অনুরোধ জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নিজে পাটকল শ্রমিকদের দায়িত্ব নিয়েছেন জানিয়ে গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, ‘আমি শ্রমিক ভাইদের বলব, যেখানে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব নিয়েছেন সেখানে ভাববার কোনো বিষয় নেই। আপনারা খুবই নিরাপদে আছেন, খুব শান্তিতে থাকবেন-এই আমার ধারণা।’

শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, পাটকল শ্রমিকরা দুই ধাপে তাদের পাওনা টাকা বুঝে পাবেন। অর্ধেক দেয়া হবে ক্যাশে, বাকি অর্ধেক সঞ্চয়পত্রের মাধ্যমে। পাশাপাশি তাদের পুনর্বাসনও করা হবে।

তিনি বলেন, পাটকল বন্ধ ঘোষণা করা মানে এগুলোকে শেষ করে দেওয়া না। পাটকল পিপিপি প্রকল্পের আওতায় নতুন করে যাত্রা শুরু করবে। আমার দৃষ্টিতে শ্রমিকরা কর্মহীন হচ্ছে না, ভালো জায়গায় যেতে হলে কিছু বেদনা থাকবে। তবে আমার দাবি থাকবে যাতে টাকাগুলো শ্রমিকরা এককালীন পান।

মানবকণ্ঠ/এইচকে

 





ads






Loading...