শ্রমিক ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত পরিহার করুন: টিইউসি

শ্রমিক ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত পরিহার করুন: টিইউসি
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • ০৪ জুন ২০২০, ২১:৫৫

ছাঁটাই ও মিথ্যা মামলায় শ্রমিকদের হয়রানির অভিযোগ করে এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) গার্মেন্ট টিইউসির সভাপতি মন্টু ঘোষ এবং সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার এক বিবৃতিতে বলেন, মহামারি পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে গার্মেন্ট শিল্প মালিকরা নিজেদের মুনাফার মার্জিন নিশ্চিত করতে শ্রমিকদের বিরুদ্ধে যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছে, তা ন্যাক্কারজনক।

শিল্প মালিকরা চরম উস্কানিমূলক আচরণ করছে অভিযোগ করে তারা বলেন, তাদের বেপরোয়া ভূমিকার ফলে শিল্পে যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে, এর দায় মালিকদের নিতে হবে।

বিজিএমইএর সভাপতির জুন থেকে শ্রমিক ছাঁটাই করার ঘোষণায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে নেতারা বলেন, বিজিএমইএ সভাপতির বক্তব্য উদ্ধত্বপূর্ণ। যারা শ্রমিকের চাকরি জীবনের অবসানকালে আইনানুগ পাওনা বঞ্চিত করতে নানান ছলা কলার আশ্রয় নিয়ে থাকেন, তারা মহামারিকালে শ্রমিক ছাঁটাই করার সুযোগ সর্বতভাবে কাজে লাগাতে চাচ্ছে।

নেতারা বলেন, ৫৫ শতাংশ কাজ কমে যাওয়ার হিসাব একটা ডাহা মিথ্যা তথ্য। অনেক কারখানায় নতুন নিয়োগ এবং পুরাতন শ্রমিকের নতুন করে চাকরিতে যোগদানের তারিখ দেওয়া হচ্ছে।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, মহামারি পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে একের পর এক শ্রমিক স্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে সরকার সাক্ষী গোপালের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। মালিকদের প্রতিটি অন্যায় আবদার মেনে নিয়ে তারা একেরপর এক শ্রমিক স্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত নিচ্ছে।

তারা বলেন, চলমান মহামারি পরিস্থিতিতে শ্রমিকের জীবন বাঁচানো এবং শিল্পের উৎপাদনশীলতা ও দীর্ঘমেয়াদি কল্যাণের জন্য অব্যাহত ছাঁটাই এবং মিথ্যা মামলায় শ্রমিক হয়রানি বন্ধ করতে হবে। এপ্রিলসহ বকেয়া বেতন, ঈদ বোনাস এবং মে মাসের বেতন দ্রুত পরিশোধ করতে হবে। তারা করোনা আক্রান্ত শ্রমিকদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ, সুচিকিৎসা, আইসোলেশন সুবিধা নিশ্চিত করার দাবি জানান। এছাড়াও নেতারা আগামী বাজেটে শ্রমিকদের রেশনিং ও বাসস্থানের জন্য অর্থ বরাদ্দের দাবি জনান।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads






Loading...