গণপরিবহনে ভাড়া নির্ধারণের বৈঠকে শ্রমিক নেতার ক্ষোভ

গণপরিবহনে ভাড়া নির্ধারণের বৈঠকে শ্রমিক নেতার ক্ষোভ
- প্রতিবেদক

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৯ মে ২০২০, ২১:৪৫

সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর থেকে বিআরটিএ খোঁজ পর্যন্ত নেয়নি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলি।

শুক্রবার (২৯ মে) বিকেলে রাজধানীর বনানীতে পরিবহন মালিক ও পরিবহন সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষের বৈঠকে তিনি এই ক্ষোভ প্রকাশ করেন। বিআরটিএ’র কার্যালয়ে বিকেল ৩টায় বৈঠকটি শুরু হয়।

এতে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ‌্যমে যোগ দিয়েছেন।

এ সময় ওসমান আলি মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘সরকার কেন এই বিমতাসুলভ আচরণ করছে, সেটা আমাদের জানা নেই। আমরা এই দুর্যোগের মূহূর্তে যাদের কাছে সাহায্য আশা করেছিলাম তারা সাহায‌্য করেনি। সাহায্য করেছে আমাদের এলাকার পুলিশ সুপার৷ তিনি ত্রাণ দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। ’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ এখানে শাজাহান খান রয়েছেন, এনায়েত সাহেব রয়েছেন, মশিউর রহমান রয়েছেন। তারাতো মনে হয় সরকারের লোক। তাই হয়তো সরকার মনে করছে তাদের দিয়ে আমাদের বুঝিয়ে শুনিয়ে রাখবেন। তা না হলে আমাদের খোঁজ খবর নেওয়া হতো। ’

এ সময় মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি এসব কথা জানি। প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি। আশা করি এই সমস্যা থাকবে না। এরপর এমন হলে আমাকে জানাবেন। আমি ত্রাণ মন্ত্রীকেও বলেছি আপনাদের কথা। তারপরও কেন এমন হয়েছে সেটা আসলে জানা নেই। আর এটা খুবই দুঃখজনক। ’

এ সময় অন্যান্য পরিবহন মালিকরা দাবি জানান, সড়কে কোনো চাঁদাবাজি করা চলবে না। এই চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারও চায় চাঁদাবাজি বন্ধ করতে। আমরা যেকোনো মূল্যে চাঁদাবাজি বন্ধ করবো।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads






Loading...