করোনায় মারা গেলেন এস আলম গ্রুপের পরিচালক

এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোরশেদুল ইসলাম
এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোরশেদুল ইসলাম - ছবি : সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৩ মে ২০২০, ০১:২৫

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠান এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোরশেদুল ইসলাম চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর।

শুক্রবার (২২ মে) রাত সাড়ে ১০ টায় আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন বলে জানিয়েছেন জেনারেল হাসপাতালে সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আব্দুর রব।

তিনি বলেন, গতকাল (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় শ্বাসকষ্ট নিয়ে জেনারেল হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি হন। কিন্তু আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে উনার একদফা কার্ডিয়াক এ্যাটাক হয়। উনার হার্টে আগে থেকেই রিং পড়ানো ছিল।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মোরশেদ আলমের মরদেহ পটিয়ার নিজ গ্রামের বাড়ি নিয়ে এসে রাতেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

মোরশেদুল আলম এস আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইফুল আলম মাসুদের বড়ভাই। এর আগে গত ১৭ মে মোরশেদুল আলম সহ পরিবারের ৬ সদস্যের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। প্রথমে সুগন্ধা বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। সেখানে আইসিউতে ছিলেন। শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়। মোরশেদুল আলমের মৃত্যু সংবাদে চট্টগ্রামে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। বিরাজ করছে এক ধরনের আতঙ্ক।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আইসিইউ ওয়ার্ডের দশটি শয্যার সবকটিই পূর্ণ থাকায় সেখানে গুরুতর অসুস্থ মোরশেদুল আলমকে ভর্তি করা যাচ্ছিল না। তবে অপর ভাই রাশেদুল আলমের শারীরিক অবস্থার তুলনামূলক উন্নতি হওয়ায় তাকে আইসিইউ ওয়ার্ড থেকে সরিয়ে সেখানে প্রায় মুমূর্ষু অবস্থায় তাদের বড় ভাই মোরশেদুল আলমকে ভর্তি করা হয়।

করোনা শনাক্ত হওয়া এস আলম গ্রুপ চেয়ারম্যান পরিবারের অন্য সদস্যরা হলেন গ্রুপের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম মাসুদের ভাই এস আলম গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুস সামাদ (লাবু), এস আলম গ্রুপের পরিচালক রাশেদুল আলম, ইউনিয়ন ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও এস আলম গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল আলম, এস আলম গ্রুপের পরিচালক ওসমান গণি এবং ফারজানা পারভীন নামে পরিবারের এক নারী সদস্য। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নন বলে সূত্রে প্রকাশ।

 




Loading...
ads






Loading...