খাবার হোটেল-বেকারি খুলতে দেয়াসহ পুলিশকে ১০ নির্দেশনা

খাবার হোটেল-বেকারি খুলতে দেয়াসহ পুলিশকে ১০ নির্দেশনা
খাবার হোটেল-বেকারি খুলতে দেয়াসহ পুলিশকে ১০ নির্দেশনা - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৮ মার্চ ২০২০, ২০:১১,  আপডেট: ২৮ মার্চ ২০২০, ২০:২২

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতে খাবার হোটেল ও বেকারিগুলো খুলতে দেয়া ও নাগরিকদের অবাধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করতে দেয়াসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ১০টি নির্দেশনা দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।

শনিবার (২৮ মার্চ) সকালে ডিএমপির উপ-কমিশনার (ডিসি), অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি), সহকারী কমিশনার (এসি) এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের (ওসি) এই বার্তা দেন তিনি।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, অনেকের রান্না-বান্নার ব্যবস্থা নেই, তাদের জন্য খাবার হোটেল, বেকারি খোলা রাখতে দিতে হবে। এগুলোতে কর্মরত কর্মচারীদের সড়কে চলাচল করতে দিতে হবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় ও অপরিহার্য পণ্যের দোকান খোলা রাখতে দিতে হবে, এসব দোকানে কর্মরতদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করতে দিতে হবে। এছাড়া খাবার হোটেল থেকে গ্রাহকদের খাবার পার্সেল নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিতে হবে। তবে কেউ যদি হোটেলে খেতে চায় তাকে অন্যের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রেখে বসতে দেয়া যাবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঢাকায় যে কোনো নাগরিক যেকোনো মাধ্যম ব্যবহার করে চলাফেরা করতে পারবেন। চিকিৎসক, নার্স, টেকনিশিয়ান, সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা, নিরাপত্তাকর্মী, মেডিকেল স্টাফদের সহযোগিতা করতে হবে।

এছাড়া পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে, যেকোনো ক্ষেত্রে নাগরিকদের সঙ্গে পেশাদার আচরণ করতে হবে। দায়িত্ব পালনের সময় পুলিশ সদস্যদেরও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এ ছাড়া পুলিশের এমন কোনো ঘটনা তৈরি করা যাবে না যাতে পুলিশের ভাবমূর্তি ও ভালো কাজগুলো ধূলিসাৎ হয়ে যায়।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে গত বৃহস্পতিবার থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য রাস্তায় পুলিশ এবং সেনাবাহিনী কাজ করছে। এরই মধ্যে ফেসবুকে দেশের বিভিন্ন স্থানে মাস্ক না পরা বা বাইরে বের হওয়ার জন্য পুলিশের লাঠিপেটা, কান ধরে উঠবস করানোর দৃশ্য চোখে পড়েছে। এ নিয়ে বিভিন্ন মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকানপাট খোলা রাখার নির্দেশনা দিলেও শুক্রবার পর্যন্ত ঢাকাসহ সারাদেশে এ ধরনের অনেক দোকানই পুলিশ খুলতে দেয়নি বলে অভিযোগ রয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads