ওয়াজ মাহফিলে ধর্মীয় উসকানি বন্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ

ওয়াজ মাহফিলে ধর্মীয় উসকানি বন্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৫ জানুয়ারি ২০২০, ২১:১৮

শীতের শুরুতে দেশের বিভিন্ন স্থানে ইসলামী ওয়াজ মাহফিল শুরু হয়েছে।  কিছু কিছু মাহফিলে সরকারবিরোধী প্রচারণাসহ ধর্মীয় উস্কানি দেওয়ার ঘটনা ঘটছে।  এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করার পাশাপাশি এ ধরনের উস্কানি বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থাগ্রহণের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

রোববার (৫ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ধর্ম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়। একইসঙ্গে এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে চিঠি দিতে বলা হয়েছে।

কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে কমিটির সদস্য মনোরঞ্জন শীল ওয়াজ মাহফিলে সাম্প্রদায়িকতা ও উসকানিমূলক বক্তব্যের প্রসঙ্গটি তোলেন।  তিনি তার নির্বাচনী এলাকার একটি উদাহরণ দিয়ে বলেন, কোনও কোনও ক্ষেত্রে ওয়াজ মাহফিলে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া হয়।  এ সময় কমিটির অন্য সদস্যরাও এ বিষয়ে একমত পোষণ করেন।  তারা জানান, সম্প্রতি ওয়াজ মাহফিলে রাজনৈতিক বক্তব্য, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হয় এমন উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া হচ্ছে।  পরে কমিটি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

এছাড়া দেশের প্রতিটি সংসদীয় আসনে মসজিদের মেরামত ও সংস্কার করার জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয় হতে বার্ষিক ১০ লক্ষ টাকা, মাদ্রাসা এবং মন্দিরের জন্য ৫ লক্ষ টাকা করে বরাদ্দ রাখার সুপারিশ করে কমিটি।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মো. হাফেজ রুহুল আমীন মাদানী। বৈঠকে কমিটির সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, জিন্নাতুল বাকিয়া, তাহমিনা বেগম ও রত্না আহমেদ অংশগ্রহণ করেন।

মানবকণ্ঠ/এসকে



poisha bazar

ads
ads