মন্ত্রিসভায় ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ’র চূড়ান্ত অনুমোদন

মন্ত্রিসভায় ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ’র চূড়ান্ত অনুমোদন
মন্ত্রিসভায় ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ’র চূড়ান্ত অনুমোদন - ছবি: সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:৫৬

‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড’ নামে সরকারি মালিকানাধীন একটি ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানির চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ। সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়।

এর মাধ্যমে বাংলাদেশে একটি টেকসই স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম তৈরিতে সরকারি মালিকানায় প্রথম ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি হিসেবে স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড বিশেষ ভূমিকা পালন করার পাশাপাশি সরকারের রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নের কাজকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে।

এর আগে, গত ১৯ আগস্ট ২০১৯ মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠকে এই কোম্পানির নীতিগত অনুমোদন প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে, লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ কর্তৃক কোম্পানিটির আইনগত বিষয়সমূহের খুঁটিনাটি যাচাইপূর্বক অনুমোদন দেওয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় আজ মন্ত্রিসভায় এই আইনটি চূড়ান্ত অনুমোদন পায়।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ-এর তত্ত্বাবধান ও নির্দেশনায় ২০১৬ সাল থেকে আইসিটি ডিভিশনের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের অধীনে উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প (আইডিয়া)’ এর মাধ্যমে স্টার্টআপদের উদ্ভাবনী ধারণাকে সফল ব্যবসায় রুপান্তরিত করার লক্ষ্যে প্রণোদনা ও সার্বিক সহোযোগিতা প্রদানের জন্যে একটি স্টার্টআপ সংস্কৃতি তৈরির কার্যক্রম শুরু হয়। ইতোমধ্যে স্টার্টআপ বাংলাদেশ-আইডিয়া প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ১২৬টি স্টার্টআপকে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। সরকারি মালিকানায় প্রথম ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি হতে স্টার্টআপদেরকে মূল্যায়নের প্রেক্ষিতে সীড স্টেজে সর্বোচ্চ ১ কোটি এবং গ্রোথ স্টেজে প্রতি রাউন্ডে সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড কোম্পানি গঠনের আইনের খসড়াটি মন্ত্রিসভায় আজ উপস্থাপন করেন

মানবকণ্ঠ/এআইএস





ads







Loading...