চীনা নাগরিক হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ২


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৪৩

ঢাকার বনানীতে চীনের নাগরিক গাওজিয়াং হুইকে হত্যার ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হলেন আবদুর রউফ (২৬) ও এনামুল হক (২৭)।

মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) রাতে ঢাকার গুলশান থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (উত্তর) এ তথ্য জানিয়েছে।

১১ ডিসেম্বর পুলিশ বনানী এ-ব্লকের ২৩ নম্বর সড়কের একটি বাড়ির পেছনের খালি জায়গা থেকে মাটিচাপা দেওয়া গাওজিয়াং হুইয়ের লাশ উদ্ধার করে। তাঁর গলায় আঘাতের চিহ্ন ছিল। তিনি ওই বাড়ির ষষ্ঠ তলায় ভাড়া থাকতেন। তাঁর লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গের হিমঘরে আছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের পরই তাঁর লাশ নেবেন বলে জানিয়েছেন স্বজনেরা। গাওজিয়াং পদ্মা সেতু প্রকল্প ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে পাথর সরবরাহ করতেন।

টাকা আত্মসাৎ করতেই চীনা নাগরিক ব্যবসায়ী গাওজিয়াং হুইকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। ওই হত্যাকাণ্ডে অন্তত তিনজন অংশ নিয়েছেন।

মামলার তদন্তসংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গতকাল মঙ্গলবার বনানী থানা থেকে গাওজিয়াং হত্যা মামলাটি ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগে (ডিবি) দেওয়া হয়। গতকালই ডিবি মামলার নথিপত্র বুঝে পায়। অবশ্য হত্যাকাণ্ডের পর থেকে ডিবি বনানী থানা-পুলিশের পাশাপাশি ছায়া তদন্ত করছে। গাওজিয়াং হত্যায় তাঁর গাড়িচালক, গৃহকর্মী, নিরাপত্তাকর্মীসহ পাঁচজনকে আটক করা হলেও জিজ্ঞাসাবাদের পর একে একে সবাইকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মামলার তদন্ত তদারক কর্মকর্তা ডিবির উপকমিশনার মশিউর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, গাওজিয়াং হত্যার পর তাঁর স্ত্রী, ব্যবসায়িক অংশীদার, ব্যবসায় সম্পৃক্ত অনেককেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। একই সঙ্গে পারিপার্শ্বিক তথ্য জোগাড় করা হয়েছে। তদন্তে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আর্থিকভাবে লাভবান ও লোভ-লালসার কারণে বাসায় ঢুকে গাওজিয়াংকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। পরে লাশ গুম করতে বাড়ির পেছনের খালি জায়গায় মাটি চাপা দেওয়া হয়। পুরান ঢাকার এক ব্যবসায়ী গাওজিয়াংয়ের প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা (সাড়ে ৫ লাখ মার্কিন ডলার) আত্মসাৎ করেছেন।

মানবকণ্ঠ/এইচকে 





ads







Loading...