রেলের গেটম্যানকে ইউএনও’র মারধরে সমালোচনার ঝড় ফেসবুকে

মানবকণ্ঠ
ইএনও কাউছার আজিজ - ছবি : সংগৃহীত।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১০:২৯

ট্রেন আসার সংকেতে রেল ক্রসিংয়ের নিরাপত্তা গেট নামিয়ে দেয়ায় রেলের এক গেটম্যানকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাউছার আজিজের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে। এতে নিন্দা জানিয়েছেন নেটিজেনরা।

কীভাবে একজন নারী সরকারি কর্মকর্তা রেলওয়ের গেটম্যানের গায়ে হাত তুলতে পারল সে প্রশ্নও করেছেন অনেকে।

মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান নামের একজন লিখেছেন, প্রভুত্ব বজায় রাখাটাই আমাদের ধর্ম! আমরা সরকারি চাকরিজীবীরা এখন জনগণের চাকর নই বরং প্রভু!

সানজিদা আক্তার নামের একজন লিখেছেন, গেটম্যান তার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেছেন। তাকে সম্মান জানাই। ইউএনও নারী তার বংশের পরিচয় জাতির সামনে উপস্থাপন করেছেন।

জসিম হক লিখেছেন, মাথা দেখি কারোরই ঠিক নাই, সবার মাথা গরম, আপা সম্বোধন করায় কেউ মাছ বিক্রেতাকে পেটাচ্ছেন, কেউ রেলের গেটম্যানকে পেটাচ্ছেন, স্যার না বলায় রেগে গিয়ে ব্যাংকের একাউন্ট হোল্ডারকে ব্যাংক থেকে বের করে দিচ্ছেন, সবার হইলোটা কী?

আবদুল আজিজ বলেছেন, এই দেশের মানুষের ব্যস্ততা বাড়ে ‌খেয়াঘাটে গেলে এবং রাস্তা ক্রস করার সময়। কিন্তু সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্যটা যে বেশি সেটা সবার মাথায় থাকে না। আল্লাহ এসব বেয়াক্কেল লোকদের বোঝার তৌফিক দাও।

উল্লেখ্য, গত ৮ নভেম্বর দুপুরে কুলিয়ারচর উপজেলার ছয়সূতি নামক স্থানে গেটম্যান সিফরাত হোসেন দায়িত্ব পালন করছিলেন। এ সময় চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস আন্তঃনগর ট্রেনটি ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন থেকে আসার সংকেত পেয়ে ছয়সূতি-কুলিয়ারচর এলাকার মধ্যবর্তী নিরাপত্তা গেট নামিয়ে দিলে অন্যান্য যানবাহনের সঙ্গে কুলিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার গাড়িটি সাময়িকভাবে আটকা পড়ে। এতে ইউএনও কাউছার আজিজ রেগে গিতে গেটম্যান সিফরাতকে বকাবকি করেন এবং এক পর্যায়ে গালিগালাজ  ও মারধর করেন বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ  ইউএনও'র বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দেয়। 

মানবকণ্ঠ/জেএস




Loading...
ads
ads





Loading...