উবার চালকদের ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট চলছে

আজ থেকে ৩ দিনের সিএনজি অটোরিকশা ধর্মঘট শুরু

মানবকণ্ঠ
ছবি - সংগৃহীত।

poisha bazar

  • মাহমুদ সালেহীন খান
  • ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ১১:২৩,  আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ১১:৩৫

আজ মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে ৩ দিনের সিএনজি ধর্মঘট। ঢাকা মহানগরীতে অবৈধ সিএনজি অটোরিকশা, রাইড শেয়ারিং ও পুলিশি হয়রানি বন্ধসহ ৯ দফা দাবিতে সিএনজি অটোরিকশা ধর্মঘট শুরু হচ্ছে। ১৫, ১৬ ও ১৭ অক্টোবর এই তিনদিন ধর্মঘট চলবে। ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে সিএনজি অটোরিকশা মালিক-শ্রমিক নামে একটি সংগঠন। এদিকে ঢাকায় উবার চালকদের ধর্মঘট চলছে। ৯ দফা দাবিতে তারা ঢাকায় ২৪ ঘণ্টার জন্য উবার অ্যাপে গাড়ি চালানো বন্ধ রেখেছেন।

গত রোববার দিবাগত রাত ১২টা থেকে সোমবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত বাংলাদেশ রাইড শেয়ারিং ড্রাইভারস অ্যাসোসিয়েশন এই ধর্মঘট ডেকেছে। এ কারণে গতকাল ঢকায় দুর্ভোগে পড়েছেন অনেক যাত্রী। ধর্মঘট চললেও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় উবারের অ্যাপে গাড়ি পাওয়া যাচ্ছে। রাজধানীর গুলশান, বনানী, ধানমণ্ডি ও তেজগাঁও অঞ্চলে অ্যাপে উবারের গাড়ি মিলছে। এ বিষয়ে কাইয়ুম আহমেদের দাবি, ৮০ ভাগ গাড়ি বন্ধ। ২০ ভাগের মতো চলছে। যারা ফেসবুক তেমন বোঝেন না, তারা তাদের ধর্মঘট সম্পর্কে অবগত নন তারাই সেবা দিচ্ছেন।

তিন মাস ধরে দাবি দাওয়া জানিয়ে উবার চালকরা এখন ধর্মঘটে নেমেছেন। উদ্ভূত সমস্যার জন্য উবার দুঃখ প্রকাশ করে বলছে, তারা চালকদের সুবিধাকে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক কাইয়ুম আহমেদ বলেন,‘জুলাই থেকে আমরা দাবি জানিয়ে আসছি। ঈদের আগে উবার অফিস থেকে সমাধানের আশ্বাস দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তারা এখন পর্যন্ত আমাদের কিছু জানায়নি। তাই আমাদের এই সিদ্ধান্ত।

উবার চালকদের দাবিগুলো হলো উবারের ওয়েবিল অনুযায়ী যাত্রা শুরু করা থেকে শেষ পর্যন্ত মিনিট ও কিলোমিটার হিসাব করে ভাড়া দেয়া। কমিশন ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১২ শতাংশ করা। গ্যাসের মূল্য বাড়ায় ভাড়া বাড়ানো। চালকদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা ও যাত্রী দ্বারা গাড়ির ক্ষতি হলে ক্ষতিপূরণ দেয়া। অভিযোগ যাচাই না করে চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়া। উবারের অ্যাকাউন্টেও যাত্রীর ছবি বাধ্যতামূলক ও যাত্রীকে লোকেশনের ব্যাপারে প্রাথমিক ট্রেনিং দেয়া। সর্বোচ্চ দুই কিলোমিটারের মধ্যে যাত্রীর সঙ্গে চালকদের সংযোগের ব্যবস্থা।

চালকদের গন্তব্যের ক্ষেত্রে শতভাগ গন্তব্যের আশপাশে ট্রিপ দিতে হবে এবং ১২ ঘণ্টার বেশি অনলাইনে না থাকার সিদ্ধান্ত বাতিল করা। কাইয়ুম আহমেদ জানান, আগে তাদের ৮ দফা দাবি ছিল। সম্প্র্রতি উবার প্রতিদিন চালকদের জন্য ১২ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে। একজন চালক দিনে ১২ ঘণ্টার বেশি চালাতে পারবেন না। কিন্তু চালকরা তা মানতে নারাজ। বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে উবার যদি দাবি না মানে, তাহলে পরবর্তী কর্মসূচি দেবেন তারা। ধর্মঘট প্রসঙ্গে এক বিবৃতিতে উবার জানায়, কিছু ব্যক্তির কারণে তাদের চালকদের সঙ্গে যে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে, সে জন্য তারা দুঃখিত। উবার বলছে, তারা চালকদের জন্য স্থিতিশীল আয়ের সুযোগ তৈরিতে নির্ভরযোগ্য, সুবিধাজনক ও নিরাপদ পরিবহন বিকল্প সরবরাহ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

এ ছাড়া চালকদের সুবিধাকে উবার অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। তারা আরো জানায়, চালকদের সমস্যার জন্য উবারের সেবাকেন্দ্র রয়েছে। অ্যাপেও সমস্যা জানানো যায়। এর মাধ্যমেই তারা সমস্যার সমাধান করে থাকে।
অন্যদিকে অটোরিকশা মালিক-শ্রমিকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ১৫ হাজার ৬৯৬টি ভাড়ায়চালিত সিএনজি অটোরিকশা ঢাকা মহানগরীতে বাণিজ্যিকভাবে চলাচলের অনুমতি রয়েছে। প্রাইভেট সিএনজি অটোরিকশা অবৈধভাবে ভাড়ায় পরিচালনা, ঢাকা জেলা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জ জেলার সিএনজি অটোরিকশাসহ আরো ১৫ হাজার সিএনজি অটোরিকশা অবৈধভাবে ঢাকা মহানগরীতে চলাচল করছে। অবৈধভাবে চলাচল করা গাড়ির মালিক পুলিশ সার্জেন্ট ও তাদের আত্মীয়-স্বজন এবং অবৈধ ব্যবসায়ীরা।

অবৈধ গাড়ি থেকে মাসোহারার ভিত্তিতে কোটি কোটি টাকা পুলিশ সার্জেন্টরা হাতিয়ে নিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন অটোরিকশা মালিক-শ্রমিকরা। তাদের অভিযোগ, বৈধ গাড়ি রাস্তায় প্রতিনিয়ত নানা অজুহাতে চালকদের নামে মামলা, গাড়ির কাগজের ওপর মামলা, কেস স্লিপের ওপর মামলা, স্টিলের গ্রিল, বাম্পার রঙ করার নামে মামলা, সামনে মোটরগার্ডের ওপর বাম্পারের জন্য মামলা, অহরহ ভিডিও মামলাসহ অসংখ্য ধরনের মামলা ও রেকারিং প্রতিনিয়ত চলছে।

এ ছাড়া রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের নামে ওভাই, পাঠাও, উবারের অবৈধ গাড়ি চালনা, চারবার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি হলেও সিএনজি অটোরিকশার ভাড়া বৃদ্ধি না হওয়া, চালকদের লাইসেন্স নবায়নে পুনরায় ব্যবহারিক পরীক্ষার নামে উৎকোচ গ্রহণ ও চালক হয়রানিসহ সুপরিকল্পিতভাবে এ খাতকে ধ্বংসের দিকে নেয়া হয়েছে।

এসব অভিযোগ ও দাবিতে ইতোমধ্যে তারা মানববন্ধন, থানায় থানায় কর্মিসভা ও গণসংযোগ এবং মালিক-শ্রমিক মতবিনিময় সভা করেছে। আজ থেকে তারা তিনদিনের ধর্মঘট পালন করবে।

মানবকণ্ঠ/জেএস






ads
ads