সাভারে সময় টিভির সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলা


  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ৩০ জুলাই ২০২১, ২১:৩৯

ঢাকার সাভারে একটি অনুমোদনহীন বহুতল ভবনের সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলা ও মারধরের শিকার হয়েছেন বেসরকারি সময় টেলিভিশনের চিত্র সাংবাদিক মনির হোসেন। আহত সাংবাদিক ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার বিকেলে আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুৎ কবরস্থান রোড এলাকার আমিন মডেল টাউনে হামলার শিকার হন ওই সাংবাদিক।

পুরো ঘটনাটি ধারণ হয়েছে সিসিটিভিতে। ফুটেজে ওই সাংবাদিককে মারধর ও লাঞ্ছিতের বিষয়টি স্পষ্ট হয়। ফুটেজে দলবদ্ধ হয়ে টেনেহিঁচড়ে ওই সাংবাদিককে মারধর করতে দেখা যায়।

ভুক্তভোগী চিত্র সাংবাদিক মনির হোসেন বলেন, অবৈধ ভাবে নির্মিত হওয়া নয়তলা ভবনের ছবি সংগ্রহের জন্য আমি সেখানে যাই। এসময় ক্যামেরা দিয়ে ফুটেজ সংগ্রহ করছিলাম আমি। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ১০-১২জন আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় আমাকে গালিগালাজ ও এলোপাথারি কিল-ঘুষি মারতে থাকে সন্ত্রাসীরা। পরে স্থানীয় ও পুলিশের সহায়তায় আমি প্রাণে বাঁচি। এসময় পুলিশ দুইজনকে আটক করলেও বাকীরা পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ভবনের মালিকপক্ষের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিউল্লাহ শিকদার বলেন, সময় টিভির চিত্র সাংবাদিককে মারধরের ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় আইনগত বিষয়টি এখনো প্রক্রিধীন।

উল্লেখ্য, সাভার ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসের আওতাধীন নয়তলা ভবনটি অনুমোদনহীন ছাড়াই ৫২ জন মিলে যৌথ ভাবে নির্মাণ করেন। পরে গত ২ জানুয়ারী অনুমোদন ছাড়া ভবনটি নির্মাণ করায় সাভার ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার (উপ-সচিব) মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা স্বাক্ষরিত এক নোটিশে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। নির্মাণকাজ বন্ধসহ ভবনের বাসিন্দাদের ১০ দিনের মধ্যে ভবন ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয় নোটিশে। এরপর ৩ ফেব্রুয়ারি ভবন মালিকদের পক্ষে শারাফাত আলী অনুমোদন ছাড়া ভবন নির্মাণের কথা স্বীকার করে ক্যান্টনমেন্ট বরাবর ক্ষমা চেয়ে একটি আবেদন করেন। তারপরও এতদিন ধরেই ভবনটি নির্মাণকাজ চালিয়ে আসা হচ্ছিলো।

মানবকণ্ঠ/এমএ


poisha bazar

ads
ads